আরিফিন শুভ এবার অবতীর্ণ হতে যাচ্ছেন ভিন্ন ভূমিকায়

ঢালিউড তারকা আরিফিন শুভ এবার অবতীর্ণ হতে যাচ্ছেন ভিন্ন ভূমিকায়। শিগগিরই শুরু হচ্ছে তাঁর নতুন সিনেমার শুটিং। সেখানে অভিনয়ের পাশাপাশি ক্যামেরার পেছনেও কাজ করতে হবে তাঁকে। নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন তিনি। এ জন্য শুটিংয়ের আগে থেকেই শুরু করে দিয়েছেন সিনেমার আনুষঙ্গিক কাজ।

ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে একটি বিজ্ঞাপনী সংস্থার হয়ে কাজ করেছিলেন শুভ। তখন শুটিংয়ে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। আসছে জুন মাস থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ‘নূর’ সিনেমার শুটিং। ছবিতে কী করতে হচ্ছে, জানতে চাইলে আরিফিন শুভ বলেন, ‘আমি প্রথমবারের মতো সিনেমার নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে কাজ করছি।

আগে শুধু অভিনয়টা নিয়েই ভাবতে হতো। এবার পুরো শুটিং কীভাবে, কোথায়, কখন হবে, সেগুলোর পরিকল্পনা করছি। শুটিংয়ের কোন ডিপার্টমেন্টের কী লাগবে, কী সমস্যা, এসব আমাকে দেখাশোনা করতে হচ্ছে। সে জন্য চিত্রনাট্য থেকে শুরু করে টেকনিক্যাল টিম, সবার সঙ্গে প্রতিদিন মিটিং করছি।’

গত মাসের শেষে ফেসবুকে ‘নূর’ সিনেমার ঘোষণা দেন আরিফিন শুভ। সিনেমাটি পরিচালনা করবেন রায়হান রাফি। এই ছবির মাধ্যমে নতুন ধরনের কাজের অভিজ্ঞতা হতে যাচ্ছে শুভর। তিনি জানান, ক্যামেরার পেছনের কাজগুলো যতটা সহজ মনে করেছিলেন, ততটা সহজ নয়। শুভ বলেন, ‘আমার সব এনার্জি শেষ।

প্রতিদিন পরিচালক, সহকারী পরিচালক, লাইট, ক্যামেরা, প্রোডাকশন টিম সবার সঙ্গে বসতে হচ্ছে, অনেক চাপে দিন কাটছে। আমার কাজে কোনো গাফিলতি হলে শুটিং বন্ধ। এটা অনেক বড় দায়বদ্ধতা। আগে শুটিং শেষ করলেই আমার দায়িত্ব শেষ হয়ে যেত। পরে প্রচারণায় অংশ নিতাম। এবার শুটিং শেষ করেও আমাকে পেছনের কাজগুলোতে থাকতে হবে।’

গত মাসে ‘বঙ্গবন্ধু’ সিনেমার শুটিং শেষ করে ভারত থেকে ঢাকায় ফিরেছেন আরিফিন শুভ। তারপর থেকেই ‘নূর’ সিনেমার প্রস্তুতি নিচ্ছেন এই অভিনেতা। জুলাই মাস থেকে শুরু হবে শুটিং। পরে তিনি যোগ দেবেন ‘বঙ্গবন্ধু’ ছবির অসমাপ্ত কাজে। এই প্রসঙ্গে শুভ বলেন, ‘একসঙ্গে দুটি বড় দায়িত্ব পালন করা কঠিন।

তারপরও কোথাও কোনো ঘাটতি থাকবে না, আশা করি। চাপ নিয়েই সব কাজ শেষ করতে হচ্ছে। শুটিং শুরু করার আগে আরও ৩ কেজি ওজন কমাতে হবে। এই সিনেমার শুটিং শেষ হলেই বায়োপিকের জন্য আবার ওজন ৭ কেজি কমাতে হবে। সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে বায়োপিকের শেষ লটের কাজ শুরু হবে।’