ভারতে তাণ্ডব চালাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’, নিহত ২

ভারতের ওডিশার বালেশ্বর ও পশ্চিমবঙ্গের দিঘায় আছড়ে পড়েছে অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’। এ সময় বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ১৫৫ কিলোমিটার। ইয়াসের আঘাতে পশ্চিমবঙ্গে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটির আবহাওয়া বিভাগ স্থানীয় সময় বুধবার (২৬ মে) সকালের দিকে ইয়াসের আঘাত হানার খবর নিশ্চিত করে।

বুধবার সকালে রাজ্যের বালেশ্বরের কাছে ধামরায় ঘণ্টায় ১৫৫ কি.মি বেগে আছড়ে পড়তে শুরু করেছে অতি প্রবল এ ঘূর্ণিঝড়। টানা তিন ঘণ্টা এর তাণ্ডব চলবে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া অধিদপ্তর। ওডিশায় উত্তাল সমুদ্র। বিশাল ঢেউ উঠছে। পানি ঢুকে পড়েছে গ্রামে গ্রামে। ঝড়ের গতিবেগ বাড়ছে।

পশ্চিমবঙ্গের দিঘা, মন্দারমণি, তাজপুর, নামখানায় পানি ঢুকে পড়েছে শহর ও গ্রামের ভিতরে। ওডিশায় প্রায় ১৪ লাখ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গেও দেড় লাখ মানুষকে নিরাপদ জায়গায় নেওয়া হয়েছে। জি২৪ ঘণ্টা জানিয়েছে, ওডিশা ও পশ্চিমবঙ্গের উপকূলীয় এলাকায় রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

ইয়াস মোকাবিলায় ট্রাফিক পুলিশ কলকাতার গুরুত্বপূর্ণ ফ্লাইওভারগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এর আগে ভারতের আবহাওয়া বিভাগের মহাপরিচালক মৃত্যুঞ্জয় মহাপাত্র বলেন, ইয়াসের প্রভাব প্রথম পড়ল ওডিশায়। এরইমধ্যে ওডিশার প্যারাদ্বীপেও ইয়াসের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে।

ইয়াসের প্রভাব মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ওডিশা, পশ্চিমবঙ্গ ও অন্ধ্র প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন। টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, ইয়াসের গতিবেগ ঘণ্টায় ১৫৫ থেকে ১৬৫ কিলোমিটার হতে পারে। রাতে এ গতিবেগ কমতে পারে। আর বৃহস্পতিবার (২৭ মে) এটি দুর্বল হতে পারে।