স্কুল ওয়াশরুমে গো’পন ক্যামেরায় ৫২ শিক্ষিকার ভি’ডিও ধারণ, অতঃপর বেতন চাইলেই

কয়েকমাস ধরে বেতন বন্ধ, বেতন চাইলেই উল্টো শিক্ষিকাদের ব্লা’কমে’ইল করা হচ্ছে। জানানো হয়, স্কুলের ওয়াশরুমে সবার অ’জ্ঞাতে গোপন ভি’ডিওধারণ করা হয়েছে। বেতন চাইলে তা ফাঁ’স করে দেয়া হবে। এভাবে একসঙ্গে ৫২ জন শিক্ষিকাকে স্কুল কর্তৃপক্ষ ব্লা’কমেইল করে যাচ্ছিল। এরপর শিক্ষিকারা স্কুল পরিচালনা পরিষদের বি’রুদ্ধে থানায় লিখিত অভি’যোগ করে। এ ঘটনা ভারতের উত্তরপ্রদেশের মেরটের এক বেসরকারি স্কুলের। খবর এই সময়।

জানা যায়, স্কুল কমিটির সম্পাদক ওয়াশরুমে আ’পত্তিকর ছবি ও ভি’ডিও ধারণ করে দিনের পর দিন শিক্ষিকাদের ব্ল্যা’কমেল করে যাচ্ছেন। বকেয়া বেতন চাইলে আপত্তিকর ছবি, ভিডিও ফাঁ’সের কথা বলে ভয় দেখান। বিনা পারিশ্রমিকে শিক্ষিকাদের কাজ করিয়ে যাচ্ছেন।। গত বুধবার এই বিষয়ে মামলা করেন শিক্ষিকারা।

যৌ’ন হয়’রানির অভি’যোগ অস্বীকার করলেও শিক্ষিকাদের কয়েক মাস ধরে বেতন না পাওয়ার অ’ভিযোগ মেনে নেয় স্কুল পরিচালন কমিটির সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, করোনা সংকটের কারণেই কয়েক মাসের বেতন বকেয়া পড়ে গিয়েছে। পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলে, বকেয়া বেতন মিটিয়ে দেওয়া হবে।