ভারতীয় বোর্ডই সবচেয়ে ধনী; বিসিবিকে টপকে চারে পাকিস্তান!

করোনা মহামারির কারণে সারা বিশ্বের খেলাধুলোই বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। ক্রিকেটও তার বাইরে নয় নয়। মাসের পর মাস খেলা বন্ধ থাকায় বোর্ডগুলো আর্থিকভাবে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে। বাধ্য হয়ে জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে দর্শকবিহীন স্টেডিয়ামে খেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

তারপরের খেলা কম হওয়ায় এবং মাঠে দর্শকদের প্রবেশাধিকার না থাকায় লাভের পরিমাণও কমেছে। কিন্তু এই মহামারীর মাঝেও ক্রিকেট বোর্ডগুলোর আয়ের অবস্থা কী?

টাইমস নাউ নিউজ ডট কম জানিয়েছে, মহামারীর মাঝেও সৌরভ গাঙ্গুলীর বিসিসিআই বিশ্বের সবেচয়ে ধনী ক্রিকেট বোর্ড। করোনায় আইপিএলে দর্শক প্রবেশ না রাখায় তাদের ক্ষতি হয়েছে।

তার ওপর এবছর আইপিএলও মাঝপথে স্থগিত হয়ে গেল। তারপরেও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের আয়ের পরিমাণ এখন ৩,৭৩০ কোটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার আয়ের পরিমাণ ২,৮৪৩ কোটি। আর ২,১৩৫ কোটি আয় নিয়ে তিনে আছে ইংল্যান্ড। মানে, ক্রিকেটের ‘বিগ থ্রি’ প্রথম তিন অবস্থান অক্ষুণ্ন রেখেছে।

এতদিন চতুর্থ ধনী ক্রিকেট বোর্ড বলা হতো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে। তবে বিসিবিকে টেক্কা দিয়ে ওপরে উঠে গেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড! তাদের আয়ের পরিমাণ ৮১১ কোটি। গত কয়েক বছর ধরে পাকিস্তান সুপার লিগ আয়োজন করায় তাদের আয় অনেকটাই বেড়েছে।

আর ৮০২ কোটি আয় নিয়ে নাজমুল হাসান পাপনের বিসিবি আছে পঞ্চম স্থানে। এরপর যথাক্রমে দক্ষিণ আফ্রিকা (৪৮৫ কোটি), নিউজিল্যান্ড (২১০ কোটি), ওয়েস্ট ইন্ডিজ (১১৬ কোটি), জিম্বাবুয়ে (১১৩ কোটি) এবং সবার শেষে থাকা শ্রীলঙ্কার আয়ের পরিমাণ মাত্র ১০০ কোটি।