ক্যারিয়ার শেষ করে সালমানকে রাস্তায় নামিয়ে আনবেন এই লোক!

কামাল আর খান। এবার নাম না করে টুইট করে স্বঘোষিত এই ফিল্ম সমালোচকের হুঁশিয়ারি- সালমান খানের ক্যারিয়ার শেষ করে দেবেন তিনি। রীতিমতো রাস্তায় নামিয়ে আনবেন ‘ভাইজান’-কে! বিতর্ক থেকে স্পটলাইট শুষে যতটুকু খবরে থাকা যায়, সেই বিষয়ে চেষ্টার কোনো কসুর করছেন না কামাল আর খান। অবশ্য এ তাঁর বরাবরের স্বভাব।

সম্প্রতি সালমান খান এবং ‘রাধে’ ছবি ঘিরে তাঁর অবমাননাকর মন্তব্য এবং জবাবে ‘ভাইজান’-এর আইনি চিঠিচাপাটির ঘটনায় সরগরম বলিউড। স্বাভাবিকভাবেই এরপর কামাল-কে আর পায় কে! ইউটিউব ভিডিও থেকে টুইট একের পর নিত্যনতুন বক্তব্য ও দাবি পেশ করেছেন স্বঘোষিত এই ফিল্ম সমালোচক।

জানিয়ে রাখা ভালো, কামাল আর খানের নামে সদ্য মানহানির মামলা ঠুকেছেন সালমান। সেই অনুযায়ী ‘ভাইজান’-এর উকিল আইনি নোটিশও পাঠিয়েছেন কামাল আর খান-কে। আইনি নোটিশ পেয়ে তিনি অবশ্য জানিয়েছেন, ‘রাধে’ ছবির ব্যাপারে তাঁর সমালোচনা সহ্য করতে না পেরে এহেন পদক্ষেপ নিয়েছেন বলিউড তারকা।

পাল্টা জবাবে অপর প্রান্তের তরফে বলা হয়েছে, সালমানের নামে মিথ্যা অভিযোগ ও ব্যক্তিগত স্তরে কুরুচিকর মন্তব্যের জেরেই নেওয়া হয়েছে এই আইনি পদক্ষেপ। এর পরেই ফুঁসে ওঠেন কামাল আর খান।এবার সালমানের খানের কেরিয়ার শেষ করে দেবেন বলে হুঁশিয়ারি দিলেন কামাল আর খান।

এ প্রসঙ্গে টুইট করে কামাল আর খান যা লিখেছেন তার বাংলা অর্থ করলে দাঁড়ায়, ‘শুনেছি ইনি নাকি বহু মানুষের কেরিয়ার খতম করে দিয়েছেন। যে ব্যক্তিই ওঁর বিরুদ্ধে কথা বলেন, তারই কাজকর্ম শিকেয় তুলে দেন তিনি। কিন্তু শুধু ঘুঘুই দেখেছ, ফাঁদ তো দেখোনি। আমিই সেই ফাঁদ। আমি এর ক্যারিয়ার ‘চৌপাট’ করে এক টানে রাস্তায় নামিয়ে আনব!”

সম্প্রতি এ বিষয়ে কামাল আর খান আরো দাবি করেছিলেন যে সালমানের সঙ্গে এই ‘লড়াই’-য়ে বলিউডের বহু ব্যক্তিত্ব নাকি তাঁর পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। ফোনের ওপার থেকে তাঁকে ভরসা জুগিয়েছেন। কামাল আর খানের কথায়, সেই বলি-ব্যক্তিত্বরা নাকি তাঁকে বলেছেন,

সে যা করছে সেসব ইচ্ছা থাকলেও তাঁরা করতে পারবেন না। কারণ সরাসরি সালমানের সঙ্গে ‘লড়াই’-য়ে নামার সাহস তাঁদের নেই। আসলে সালমানকে শত্রু বানাতে কে-ই বা চায়। তাই এখন স্রেফ ‘তাঁদের’ জন্য সালমানের সঙ্গে এই লড়াই চালিয়ে যাবেন তিনি, জানিয়েছিলেন কামাল আর খান।

kalerkantho