ভারতে পাচার করা ৫০০ নারীকে অসামাজিক কাজে বাধ্য করান বস রাফি

চারপাশের নারীদের চোখে-মুখে ভয়, আতঙ্ক। তাঁদের শঙ্কা নিজের নিরাপত্তা নিয়ে, নিজেদের সন্তান-স্বজনদের নিরাপত্তা নিয়ে। এই সমাজে নারী নিরাপদ কোথায়, কখন? স্বামীর সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন নারী। নিজের বাড়িতে লাঞ্ছিত হয়েছেন নারী। চার বছরের শিশুকে ছাড়ে না ধর্ষকেরা!

নতুন খবর হচ্ছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাংলাদেশি এক তরুণীকে ভারতে যৌন নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হয়। এতে ভারত ও বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নড়েচড়ে বসে। সেই ঘটনায় রাজধানী মগবাজারের টিকটক হৃদয়কে শনাক্ত করে পুলিশ। এরপরেই ভারতীয় পুলিশ বেঙ্গালুরু থেকে দুই নারীসহ ছয়জনকে গ্রেফতার করে।

সেখান থেকে পালাতে গিয়ে টিকটক হৃদয় ও সাগরের পায়ে গুলি লাগে। তারা ভারতে পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। ওই ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে আন্তর্জাতিক নারী পাচার চক্রের তথ্য পায় বাংলাদেশি পুলিশ। এদিকে এই চক্রের অন্যতম মূলহোতা আশরাফুল মণ্ডল ওরফে বস রাফিসহ চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।