বৃদ্ধকে খু’ন করে গাছে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ

জমিজমা-সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মো. ইয়াকুব আলী (৬০) নামে এক বৃদ্ধকে খুন করে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (২ জুন) সকালে বাড়ির উঠানের গাছ থেকে ইয়াকুব আলীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ইয়াকুব দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর থানার উত্তর পলাশবাড়ী গ্রামের উত্তর পাড়ার বাসিন্দা।

এই ঘটনায় নিহতের ছেলে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ১৫তম ব্যাচের কৃষি অনুষদের শিক্ষার্থী আব্দুল আজিজ অভিযোগ করে বলেন, কিছুদিন থেকেই জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে প্রতিপক্ষের সঙ্গে বিরোধ চলছিল আমাদের।

এই বিরোধের জেরে গত ২৮ মে প্রতিপক্ষের ৫ থেকে ৬ জন আমার মাকে বাড়িতে একা পেয়ে কুপিয়ে জখম করে। আমার মা এখনো হাসপাতালে রয়েছে। এই ঘটনায় দিনাজপুর চিরিরবন্দর থানায় আমরা একটি মামলা দায়ের করি। মামলা দায়েরের পর থেকেই তারা আমাদের খুনের হুমকি দিয়ে আসছিল।

আমি বিশ্ববিদ্যালয় এবং মা হাসপাতালে থাকায় বাবা একাই বাসায় ছিল। এই সুযোগেই বাবাকে হত্যা করে খুনিরা। খুনের পর বাবার লাশ বাড়ির উঠানে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে দেয়, যেন এটাকে আত্মহত্যা বলে সন্দেহ হয়।

এ ব্যাপারে দিনাজপুর চিরিরবন্দর থানার ওসি হারিসুল ইসলাম বলেন, আমরা মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি। অভিযুক্ত আসামিরা এখনো পলাতক রয়েছে। আমরা তাদের খোঁজার চেষ্টা করছি।