‘সর্বাত্মক চেষ্টার’ পরও উদ্ধার হয়নি পরিকল্পনামন্ত্রীর মোবাইল

রাস্তায় গাড়িতে বসা অবস্থায় পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের ছিনতাই হওয়া মোবাইল উদ্ধারে এখনো কোনো ক্লু পায়নি পুলিশ, ডিবিসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট। রাজধানীর বিজয় সরণি এলাকায় রোববার সন্ধ্যায় মন্ত্রীর মোবাইল ছিনতাই হয়। এরপর থেকে রাজধানীর বিজয় সরণি, তেজগাঁও, চন্দ্রিমা উদ্যান, কাফরুল এলাকার প্রায় ডজনখানেক চিহ্নিত ছিনতাইকারীকে ধরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ।

তারাও কোনো সন্ধান দিতে পারেনি। তাদের দাবি, তাদের নেটওয়ার্কেও পরিকল্পনামন্ত্রীর ফোন ছিনতাইয়ের তথ্য নেই। পুলিশ জানায়, ঘটনাস্থলে কোনো সিসিটিভি ক্যামেরা ছিল না। আশপাশের এলাকার ক্যামেরাগুলো থেকে ছিনতাইয়ের সময়ের ফুটেজ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে অস্বাভাবিক কিছুই পায়নি পুলিশ।

এ ঘটনায় কাফরুল থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলাটি তদন্ত করছেন থানার এসআই জিএম ফরিদুল আলম। তিনি বলেন, ফোন উদ্ধারে সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে। আমরা একাধিক লোককে জিজ্ঞাসাবাদও করেছি। এখনো ফোন উদ্ধারের মতো কোনো ক্লু পাওয়া যায়নি।

কাফরুল থানার ওসি মো. সেলিমুজ্জামান বলেন, থানা পুলিশ, ডিবিসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট কাজ করছে। তবু এখনো কোনো ক্লু পাওয়া যায়নি। আমরা ফোনটি উদ্ধারে সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার পরিকল্পনা কমিশনে এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক বৈঠক শেষে সংবাদ ব্রিফিংয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী তার ফোন ছিনতাইয়ের ঘটনা জানান।

তিনি বলেন, সন্ধ্যায় পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় থেকে যাওয়ার পথে বিজয় সরণিতে গাড়িতে বসে মোবাইল ব্রাউজ করছিলাম। হুট করে কিছু বুঝে ওঠার আগেই কেউ একজন মোবাইল নিয়ে দৌড় দেয়। ব্রাউজিংয়ে মনোযোগ থাকার কারণে মুহূর্তের মধ্যে কী ঘটেছে তা বুঝতেও কয়েক সেকেন্ড কেটে যায়। সম্বিৎ ফিরে পেয়ে গাড়িতে থাকা পুলিশের গানম্যানকে বলি আমার মোবাইল নিয়ে গেল।

গাড়ি থামিয়ে গানম্যান ওই ছিনতাইকারীর পিছু নিলেও তাকে আর ধরতে পারেনি।