ছাত্রদলের দু’পক্ষের হাতাহাতি

বগুড়ায় দলীয় কর্মসূচিতে ব্যানারের সামনে দাঁড়ানো নিয়ে ছাত্রদলের দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের নবাববাড়ি সড়কে কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এতে কেউ আহত হয়নি বলে নেতারা দাবি করেছেন। বিকালে এ খবর পাঠানোর সময় দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। দলীয় কার্যালয়ের সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি চত্বরে ছাত্রদলের খাবার বিতরণ কর্মসূচিতে হামলার প্রতিবাদে বগুড়া জেলা ছাত্রদল বৃহস্পতিবার সকালে দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। সমাবেশ শুরুর আগে ছাত্রদলের একটি মিছিল দলীয় নবাববাড়ি সড়কে কার্যালয়ের সামনে আসে।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ব্যানারের সামনে দাঁড়ানো ও ফটোসেশন নিয়ে জেলা ছাত্রদলের বৃত্তি ও ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক আলমগীর হোসেনের সঙ্গে অন্যদের প্রথমে ঠেলাঠেলি, বাকবিতণ্ডা ও একপর্যায়ে হাতাহাতি শুরু হয়। এতে আলমগীর হোসেনের শরীরে রক্তাক্ত জখম হয়। তখন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু হাসান ও সাধারণ সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যানের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

নেতারা জানান, ব্যানারের সামনে দাঁড়ানো নিয়ে বাকবিতণ্ডা থেকে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। দুইপক্ষের সঙ্গে বসে মীমাংসা করা হয়েছে। এ ঘটনায় কেউ আহত হয়নি। বগুড়া সদর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই খোরশেদ আলম রবি জানান, ছাত্রদলের সমাবেশ শুরুর আগেই দুইপক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে নেতাকর্মীরা চলে যান।