বাইসাইকেলে অলিগলি টহল দেবে পুলিশ

ময়মনসিংহ: অপরাধ দমনে পুলিশি টহল। তবে তা পায়ে হেঁটে কিংবা মোটরযানে নয়। পুলিশ রাস্তায় নেমেছে বাইসাইকেলের প্যাডেল চেপে। ব্যতিক্রমী এমন চিত্র ময়মনসিংহ নগরীতে। মূলত নগরীর অলিগলিতে মাদক, চুরি-ছিনতাই রোধে এমন উদ্যোগ জেলা পুলিশের।

বৃহস্পতিবার (০৩ জুন) দুপুরে বিট পুলিশিংয়ে বাইসাইকেল টহল কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন রেঞ্জ ডিআইজি ব্যারিস্টার হারুন অর রশিদ। এসময় রেঞ্জ ডিআইজি বলেন, নগরজুড়ে বাইসাইকেলে পুলিশি টহল ব্যবস্থা নতুন করে ময়মনসিংহে শুরু করা হলেও এটি কিন্তু নতুন নয়।

বৃটিশ শাসনামলে পুলিশ বাইসাইকেলে চড়ে অপরাধ প্রবণতারোধে সমগ্র এলাকায় টহল দিত। বিশ্বের অনেক উন্নত দেশেও এই কার্যক্রম চালু আছে। নগরীর অলিগলিতে যেখানে বড় বড় যানবাহন নিয়ে চলাচল করা সম্ভব নয়, সেখানের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এ বাইসাইকেল টহল অনেক গতি আনবে বলে মনে করি। একইসঙ্গে অপরাধ প্রবণতাও কমে আসবে।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোহা. আহমার উজ্জামান বলেন, সম্প্রতি বিভিন্ন মাধ্যমে খবর পাচ্ছি নগরীর বিভিন্ন অলিগলিতে ওঁৎ পেতে থেকে অনেকের রাস্তারোধ করে মোবাইল, টাকা-পয়সা ছিনিয়ে নিচ্ছে। ইজিবাইকের চালককে হত্যা করে বাইক ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এমন অপরাধ নিয়ন্ত্রণে বিট পুলিশিংয়ের এ বাইসাইকেল সেবা কার্যকর ভূমিকা রাখবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত রেঞ্জ ডিআইজি ড. আক্কাস উদ্দিন ভুঁইয়া, রেঞ্জ কার্যালয়ের পুলিশ সুপার সৈয়দ হারুণ অর রশিদ, ময়মনসিংহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফজলে রাব্বি, আবু রায়হান, হাফিজুর ইসলাম, মো. আলাউদ্দিন, কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশের ওসি ফিরোজ তালুকদার, ডিবির ওসি শাহ কামাল আকন্দ, ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক (প্রশাসন) সৈয়দ মাহবুবুর রহমানসহ অন্যান্য পুলিশ কমকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রাথমিকভাবে নগরীর কয়েকটি বিটে পুলিশ সদস্যদের এ বাইসাইকেল টহল শুরু হলেও পর্যায়ক্রমে এর আওতায় আসবে পুরো নগরী।নগরবাসীকে স্বাচ্ছন্দ্যে চলাচল ও নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছাতে পুলিশের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে স্থানীয় বাসিন্দারাও।