‘অতীতে ব্যবসায়ীদের প্রতি অনেক অবিচার করা হয়েছে’

জাতীয় সংসদে ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য উপস্থাপিত বাজেটে ব্যবসায়ীদের বেশি সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার প্রস্তাবের বিষয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, অতীতে ব্যবসায়ীদের প্রতি অনেক অবিচার করা হয়েছে। তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের অবহেলা করে দেশ ও দেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নেওয়া সম্ভব নয়। দেশের অর্থনীতির অগ্রগতির ধারা চালু রাখতে হলে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটাতে হবে।

শুক্রবার বাজেট পরবর্তী ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। নতুন বাজেটে ব্যবসায়ীদের বেশি সুযোগ-সুবিধা দেওয়ার কারণ খণ্ডন করে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাজেটে কর্মসংস্থান সৃষ্টির বিষয়টিকে জোর দিতে গিয়ে বেসরকারি খাতকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। আমরা মনে করছি, বাজেটকে জনবান্ধব করতে হলে ব্যবসাবান্ধব করতে হবে। এ দৃষ্টিকোণ থেকে এবারের প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যবসা সম্প্রসারণের দিকে জোর দেওয়া হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, করোনার কারণে দেশের অর্থনীতি প্রথমে কিছুটা হোঁচট খেলেও আমরা এটি কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হয়েছি। সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপের কারণে আমরা অর্থনীতির ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের অর্থনীতি এখন এগিয়ে চলেছে।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় জাতীয় সংসদে ২০২১-২২ অর্থবছরের জন্য ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকার বাজেট উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকার প্রস্তাবিত এই বাজেটের ঘাটতি ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা। এবারের বাজেট মোট জিডিপির ১৭ দশমিক ৪৭ শতাংশ। ঘাটতি জিডিপির ৬ দশমিক ২ শতাংশ। চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে এ ঘাটতির পরিমাণ ছিল ৬ শতাংশ।

‘জীবন-জীবিকায় প্রাধান্য দিয়ে সুদৃঢ় আগামীর পথে বাংলাদেশ’ শিরোনামের এবারের বাজেট দেশের ৫০তম, আওয়ামী লীগ সরকারের ২১তম ও বর্তমান অর্থমন্ত্রীর তৃতীয় বাজেট।