ভারতীয় ট্রাকচালকদের খোলামেলা চলাফেরায় নিষেধাজ্ঞা

সাতক্ষীরায় কঠোর লকডাউনের মধ্যেও খোলা রয়েছে ভোমরা স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য। তবে স্থলবন্দরে আসা ভারতীয় ট্রাকচালক ও তার সহকারীদের খোলামেলা চলাফেরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এদিকে করোনা সংক্রমণরোধে বেশ কিছু বাধা নিষেধের মধ্যে সাতক্ষীরায় আজ রোববার চলছে লকডাউনের দ্বিতীয় দিন।

সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় বিক্রয়ের সুযোগ পাচ্ছেন সাতক্ষীরার মানুষ। তবে আন্তঃজেলা ও দূরপাল্লার গনপরিবহন বন্ধ রয়েছে। এর আগে গত শনিবার থেকে সাতদিনের জন্য শুরু হয়েছে এ লকডাউন।

বিজিবি সাতক্ষীরা-৩৩ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে. কর্নেল আল মাহামুদ জানান, লকডাউন চলাকালে সাতক্ষীরার সঙ্গে খুলনা ও যশোরের সংযোগস্থলে পুলিশ চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে একইভাবে পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।

ভোমরা স্থল বন্দরে আসা ভারতীয় ট্রাক চালক ও হেলপারদের বন্দরে খোলামেলা চলাফেরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এদিকে সাতক্ষীরা সীমান্ত পথে বৈধ অবৈধ যাতায়াত পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সীমান্ত জুড়ে টহলে রয়েছে বিজিবি সদস্যরা।

বিজিবি সদস্যরা শনিবার কুশখালি সীমান্ত থেকে অবৈধভাবে পারাপারের সময় দুই নারীকে উদ্ধার ও একজন নারী পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৫০ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে।