কলা খেয়ে ফেসবুকে ছবি দেওয়ায় পেটালেন ছাত্রলীগ নেতা!

কলা খেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেয়ায় প্রবাসীর বাবাকে জোর পূর্বক উঠিয়ে নিয়ে মারধর করলেন ছাত্রলীগ জুড়ি উপজেলা সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল। এতে বিচার চেয়ে জুড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী স্বপন মিয়া।

জুড়ি থানায় স্বপন মিয়ার দেয়া লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, স্বপন মিয়া জুড়ি শিশুপার্ক এলাকার একজন চা দোকানদার। তার এক ছেলে নাইম আহমদ দুবাই প্রবাসী। সে কিছু দিন আগে দুবাইয়ে বসে কলা খেয়ে সেটি তার নিজ ফেসবুক আইডিতে পোস্ট করে। এ ছবি দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন জুড়ি উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল।

গত বৃহস্পতিবার (০৩ জুন) রাতে তার অনুসারীদের দিয়ে প্রবাসী নাইম মিয়ার বাবা স্বপন মিয়াকে জোর পূর্বক দোকান থেকে উঠিয়ে জুড়ি মার্কেটে নিয়ে যায়।

সেখানে ছাত্রলীগ সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল ও অনুসারীরা তাকে মারধর করে। সেই সাথে স্বপন মিয়াকে কান ধরে উঠবস করানো হয়। পরে তার ছেলের ফেসবুকে দেয়া কলার পোস্টের জন্য ক্ষমা চেয়ে ছাড়া পান।

এ ঘটনাটি পরদিন শুক্রবার রাতে স্থানীয় দুই আওয়ামী লীগ নেতার মধ্যস্থতায় থানায় সালিশ বৈঠক বসে। সেখানেও ছাত্রলীগ সভাপতি সাবেল তাকে দা নিয়ে ধাওয়া করেন। সালিশ সন্তোষজনক না হওয়ায় সাবেলসহ ঘটনাকারীদের বিরুদ্ধে তিনি জুড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ দেন।

জুড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সঞ্জয় চক্রবর্তী লিখিত অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে তিনি জানান, এ বিষয়টি সমাধানে স্থানীয় মুরব্বিরা উদ্যোগ নিয়েছেন। এদিকে স্বপন মিয়া তার ছেলের কলা খাওয়া এবং আইডিতে পোস্ট দেয়ার বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন। এ বিষয়ে কথা বলতে ছাত্রলীগ জুড়ি উপজেলার সভাপতির ফোনে কল দিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি।

এলাকার লোকজনরা জানিয়েছেন, সাবেলের বাবা এক সময় কলা ব্যবসায় জড়িত ছিলেন। কলা খেয়ে আইডিতে পোস্ট দেয়াতে সে অপমানিত বোধ করায় স্বপন মিয়াকে মারধর করে।