প্রেম ভেঙে যায় ৭ কারণে

সম্পর্ক তো এমন একটা দৃঢ় বন্ধন যা সহজে আলগা হওয়ার নয়। একজন অন্যজনকে জেনে বুঝেই তো সম্পর্কটা হয়ে থাকে। পথ চলতে চলতে সেই বাঁধন অনেক সময় হঠাৎ করে ভেঙে যায়। এর কারণ আজকাল সম্পর্ক গড়তেও সময় লাগে না, ভেঙে যায় মুহূর্তে। কিছু ভুলে প্রেমের স্থায়িত্ব বেশিদিন থাকে না। বিশেষজ্ঞদের মতে, সম্পর্ক ভাঙার ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে। যেমন-

১. সঙ্গীর থেকে অতিরিক্ত চাহিদা থাকলে কিছুতেই সেই প্রেম স্থায়ী হয় না। প্রত্যেক মানুষেরই চাওয়া, পাওয়ার একটা সীমা থাকা প্রয়োজন। এমন কিছু মানুষ আছেন যারা সঙ্গীকে ঠকিয়ে প্রচুর জিনিস আদায় করতে চান। এটা সম্পর্কে ফাটল তৈরি করে।

২. যেকোনো সম্পর্কের ভিত্তি হল বিশ্বাস। যেখানে বিশ্বাস নেই সেই সম্পর্ক কিন্তু কখনই টেকে না। যারা ঘন ঘন সঙ্গী বদলান তাদের নিজের ওপরই কোনো ভরসা থাকে না। তাই সম্পর্কে পরষ্পরের প্রতি শ্রদ্ধা ও বিশ্বাস থাকা প্রয়োজন।

৩. মেয়েদের ক্ষেত্রে একটি কমন সমস্যা হচ্ছে- কেন তারা সঙ্গী বাছাই করলেন সে কথা নিজেরাও জানেন না। ফলে কিছুদিন যেতে না যেতেই তাদের নানা রকম খুঁত বের করেন। যেমন- তাদের মনে হয় সঙ্গী তাকে ঠিক মতো বোঝে না, কারও সঙ্গী আবার অর্থনৈতিক দিক থেকে স্বচ্ছল না হলেও সমস্যা তৈরি হয়।

৪. অনেকেই ভাবেন প্রেম করলে বুঝি সারাদিন খোঁজখবর নেওয়া, ফোনে কথা বলাটাই নিয়ম। কিন্তু এটা ঠিক নয়। এছাড়াও অনেকেই থাকেন যারা সঙ্গীর সঙ্গে ঠিক করে কথা বলেন না। ফোন, টেক্সট কোনও কিছুই করেন না। এই মানসিকতা থেকেও অনেক প্রেম কেটে যায়।

৫. সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার অন্যতম কারণ হলো বাস্তব জ্ঞানের অভাব। অনেকর মধ্যেই বাস্তববোধের প্রচণ্ড অভাব থাকে। এরা অনেক বেশি আবেগে ভাসতে পছন্দ করেন। জীবনটাকে সিনেমার মতো দেখতে চান। সারাক্ষণ সঙ্গীর সঙ্গে ঘোরাঘুরি, বেড়ানো, শপিং, রেস্তোরাঁয় খেতে যাওয়া, সিনেমা দেখা এসব করতে পছন্দ করেন। কিন্তু এরকমটা সবসময় হয়ে উঠে না। এটি মেনে না নিতে পারলেই ঝামেলাটা পাকে।

৬. অনেক সময় দুজন আবেগে পড়ে সম্পর্ক গড়ে উঠলেও যোগ্যতা ফারাক হয়ে দাঁড়ায়। একজনের তুলনায় অন্যজন যদি অনেক বেশি যোগ্যতাসম্পন্ন হয় তখন এক ধরণের দূরত্ব তৈরি হয়। কম যোগ্যতাসম্পন্ন সঙ্গী হীনমন্যতায় ভোগেন। এমন ক্ষেত্রে সম্পর্ক বেশি দূর এগোয় না।

৭. দূরত্বের কারণেও অনেক সময় সম্পর্ক ভেঙে যায়। কোনো কারণে সঙ্গী অপর সঙ্গী থেকে সাময়িক দূরত্ব বজায় রাখলে সেটিও স্থায়ী রূপ নিতে পারে।