তিশার ম’রদে’হে আ’ঘা’তের চি’হ্ন, স্বামী আ’ট’ক

বরিশাল সদর হাসপাতাল রোড এলাকার একটি বাসা থেকে স্ত্রী’র ঝু’ল’ন্ত ম’র’দে’হ উদ্ধারের ঘটনায় বাপ্পী কর্মকার নামে এক ব্য’ক্তিকে আ’টক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে তার স্ত্রী তিশা কর্মকারের ঝু’ল’ন্ত ম’র’দেহ উদ্ধার করা হয়।

শনিবার ঘটনাটি আ’ত্ম’হ’ত্যা বলে প্রচার চালিয়ে দিনভর ধামাচাপা দেয়া হলেও দুপুরে প্রতিবেশীদের স’ন্দে’হ হয়। পরে খবর পেয়ে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ বাপ্পী কর্মকারকে আ’ট’ক করে।

তিশা কর্মকার পিরোজপুরের স্বরূপকাঠী উপজেলার বাশতলা গ্রামের সুকদেব কর্মকারের মেয়ে। আ’ট’ক বাপ্পী কর্মকার নগরীর হাসপাতাল রোডের বাসিন্দা।

শুক্রবার রাত ১টার দিকে স্বামীর ঘরে তিশার ঝু’ল’ন্ত ম’র’দেহ পাওয়া যায়। পরিবারের সদস্যরা দাবি করেছেন, তিশা গলা’য় র’শি দিয়ে আ’ত্ম’হ’ত্যা করেছেন।

মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার মো. রাসেল জানান, তিশার হাতে ও গ’লায় আ’ঘা’তের চিহৃ পাওয়া গেছে।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী বাপ্পী কর্মকারকে আ’টক করা হয়েছে। তিশার ম’র’দেহ ময়না’তদ’ন্তের জন্য ম’র্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মা’ম’লা দা’য়ে’রসহ আইন’গত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।