দু’য়ের বেশি সন্তান থাকলে সরকারি সুবিধা মিলবে না

দুইয়ের বেশি সন্তান থাকলে ভবিষ্যতে সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা পাওয়া যাবে না ভারতের আসামে। রাজ্য সরকার দুই সন্তান নীতি কার্যকরের দিকেই এগোচ্ছে বলে শনিবার জানিয়েছেন আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের।

এদিন সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ভারত সরকারের বাস যোজনা বা বিনামূল্যে স্কুল কলেজে ভর্তির মতো কেন্দ্রীয় প্রকল্পের ক্ষেত্রে আমরা দুই সন্তান নীতি কার্যকর করতে পারব না। কিন্তু আসাম সরকারের প্রকল্পগুলোতে এই নীতি চালু হবে। ধীরে ধীরে রাজ্য সরকারের সব প্রকল্পেই জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের এই নীতি বাস্তবায়ন করা হবে।

চলতি মাসেই শুরুতে ‘ভদ্রস্থ পরিবার পরিকল্পনা’ প্রসঙ্গে অভিবাসনকারী মুসলিম নারীদের নিশানা করেছিলেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা। মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘দারিদ্রতা দূর ও জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করতে মুসলিম নারীদের শিক্ষিত করে তুলতে হবে। এ ক্ষেত্রে আমাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এগিয়ে আসার জন্য আমার আহ্বান থাকলো।’

দরিদ্রের অভিশাপ দূরীকরণে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ অত্যন্ত প্রয়োজন বলে দাবি হিমন্তর। আসাম পঞ্চায়েত আইন ২০১৮ অনুসারে, যারা পঞ্চায়েত ভোটে প্রার্থী হবেন তাদের দু’য়ের বেশি সন্তান থাকা যাবে না, নূন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা তাকতে হবে। প্রার্থীর বাড়িতে শৌচাগার থাকাও বাধ্যতামূলক।