খামারীরা ন্যায্য দাম না পাওয়ায় দুধ মাটিতে ফেলে প্রতিবাদ

আবু জাফর সিদ্দিকী, সিংড়া প্রতিনিধি ; নাটোরের সিংড়ায় ন্যায্য দাম না পাওয়ায় খামারীরা দুধ মাটিতে ঢেলে অভিনব প্রতিবাদ করেছে। শুক্রবার ও শনিবার সকালে বাহাদুরপুর বটতলা এলাকায় প্রায় ৩০ জন খামারী দুধ ঢেলে বাড়িতে ফিরেন। ১৫ থেকে ২০ টাকা দরে কোনো কোনো দিন বিক্রি করতে হয়, এতে করে লোকসানে খামারীরা।

বিশেষ করে খড় ও ভূষির দাম বেশি থাকায় এবং দুধের দাম কম হওয়ায় আগ্রহ হারিয়ে ফেলছে অনেক খামারী। এ কারণে সরকারি ব্যবস্থাপনায় দুগ্ধখামার গড়ে তোলার দাবি খামারীদের। জানা যায়, সিংড়া উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে প্রায় ৬০০টি গরুর খামার রয়েছে। রয়েছে বিভিন্ন বাজার ও হাট। এসব স্থানীয় হাট ও বাজারে দুধ বিক্রি হয়।

বাড়িতে পুষ্টির চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি মহাজনদের কাছে প্রতিদিন ৪০ থেকে ৬০ লিটার দুধ একেকজন খামারী বিক্রি করতে আসেন। কিন্তু লকডাউনের কারণে বাজার মন্দা থাকায় মহাজন না আসলে দুধ নেয়ার মত ক্রেতাও থাকে না। দুধ নিয়ে বাড়ি ফেরাও কষ্টের কারণ। এজন্য মিল্ক ভিটা গড়ে তোলার দাবি খামারীদের।

উপজেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ এস এম খুরশিদ আলম জানান, কলম, চামারী, হাতিয়ান্দহ এলাকায় বহু খামারী আছে। চামারী ও হাতিয়ান্দহতে বেসরকারিভাবে প্রাণ ও আড়ং দুগ্ধ ক্রয় করে। শুক্রবার কিংবা অন্যান্য ছুটির দিন দুধ ক্রয় বন্ধ থাকে। তিনি আরো বলেন, ইটালী ও ডাহিয়া ইউনিয়নে সরকারি ব্যবস্থাপনায় দুধ ক্রয় কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য সুপারিশ পাঠানো হয়েছে।