বেতাগীতে স্কুলের সামনেই ছাত্রীর শ্লীলতাহানি, দাঁড়িয়ে ভিডিও করল বাকিরা

বরগুনার বেতাগীতে বিদ্যালয়ে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টাসহ শ্লীলতাহানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। বখাটেরা সেই শ্লীলতাহানির ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেইসবুক ম্যাসেঞ্জারে আদান প্রদান করেছে যা ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়েছে। বেতাগী থানায় মামলা হওয়ায় অপরাধীরা এলাকা ছেড়েছে।

জানা গেছে, গত ২৩ জুন বুধবার বেতাগী উপজেলার হোসনাবাদ ইউনিয়নের হোসনাবাদ আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে যায় দশম শ্রেণির ওই ছাত্রী। জমা শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে বিদ্যালয়ের সামনের গেট সংলগ্ন স্থানে ৬ জন বখাটে যুবক পথরোধ করে এবং টেনে বিদ্যালয় ভবনের দক্ষিণ পাশে পরিত্যাক্ত ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের পেছনে নিয়ে যায়।

বখাটেরা কেউ কেউ এ সময় ধর্ষণ এবং শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। ওই অন্যরা এসব দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করে। এ সময় স্কুলছাত্রীর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। ভুক্তভোগীর পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই বখাটেরা স্থানীয় ইমন জোমাদ্দার, বাপ্পি তালুকদার, ইমরান, রণি, আসলাম ও ইব্রাহিম হাওলাদার।

গত ২৫ জুন ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত ৬ জনকে আসামি করে ভুক্তভোগীরর বাবা জালাল হাওলাদার বেতাগী থানায় মামলা করেন। ভুক্তভোগীর বাবা জালাল হাওলাদার জানান, প্রথমে লোক-লজ্জার ভয়ে বিষয়টি চেপে যেতে চেয়েছি। কিন্তু যখন সবার ফোনে ফোনে মেয়ের ভিডিও দেখতে পাই তখন আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছি এবং থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

এ ব্যাপারে বেতাগী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি ঘটনার সত্যতা মিলেছে, মামলা রুজু হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।