জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গীকার পূরণে শিক্ষাই হবে প্রধান হাতিয়ারঃশিক্ষামন্ত্রী

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বের বুকে অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় এগিয়ে যাচ্ছে। নতুন খবর হচ্ছে, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বর্তমান সরকারের ২০৪১ সালের উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গীকার এস ডি জি অর্জনে শিক্ষা প্রধানতম হাতিয়ার। তাই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিটি কাজ জাতির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

তিনি সততা, নিষ্ঠা এবং আন্তরিকতা নিয়ে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে কাজ করার জন্য মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মকর্তাদের আহবান জানান। মন্ত্রী আজ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর সংক্রান্ত অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

আজ দুপুর ১২ টায় মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো: মাহবুব হোসেন ‌এবং বিভাগের অধীন ১৫ দপ্তর ও সংস্থা প্রধান ২০২১-২০২২ অর্থবছরের বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর করেন। অন্যদিকে একই স্থানে দুপুর ২ টায় কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ আমিনুল ইসলাম খান

এবং ঐ বিভাগের ৫ টি দপ্তর ও সংস্থা প্রধান ২০২১-২০২২ অর্থ বছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে অন লাইনে যুক্ত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এম.পি। তাছাড়া দুই বিভাগের বিভিন্ন সংস্থার প্রধান, উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন করোনার সময় শিক্ষা মন্ত্রণালয় কিছু আইন ও বিধি প্রণয়ন ও সংস্কার করেছে। করোনার মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এমপিও নীতিমালা প্রণয়ন করেছে। শিক্ষা আইন চুড়ান্ত করা হয়েছে। অত্যন্ত সফলভাবে ৩৫ কোটি পাঠ্য পুস্তক শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। এই জন্য তিনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মচারীদের বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন গত এক বছর করোনার কারণে আমাদের কার্যক্রমের গতি কিছুটা কম ছিল। কিন্তু আগামী এক বছরে সরকারের ভিশন বাস্তবায়নে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাজের গতি বৃদ্ধি করতে হবে।

কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষরের পাশাপাশি অনুষ্ঠানে ২০২০-২০২১ অর্থ বছরের ভাল কাজের পুরস্কার হিসেবে শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ গোলাম ফারুক, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সহকারি সচিব ফজলুর রহমান এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অফিস সহায়ক ইউসুফকে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের ২০২০-২০২১ অর্থবছরের শুদ্ধাচার পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে।