খা’লাস চেয়ে ২১ যুক্তি দে’খিয়ে হা’ইকো’র্টে আপি’ল মিন্নির

বর’গুনার আলো’চিত রি’ফাত শ’রীফ হ’ত্যা’ মা’ম’লা’য় মৃ’ত্যু’দণ্ড’প্রা’প্ত তার স্ত্রী আ’য়ে’শা সি’দ্দিকা মি’ন্নি খা’লা’স চে’য়ে হা’ইকো’র্টে আ’পিল ক’রেছেন। মঙ্গ’লবার (৬ অক্টোবর) মিন্নি’র পক্ষে তার আ’ইন’জী’বী মা’ক্কিয়া ফা’তেমা ইস’লা’ম হাই’কো’র্টের সংশ্লি’ষ্ট শাখা’য় আ’বেদন’টি করেন। ২১টি যু’ক্তি দিয়ে মিন্নির খা’লাস চে’য়ে হাই’কো’র্টে আ’বে’দন করা হয়েছে ব’লে জা’না গেছে।

মিন্নি’র খা’লাস চেয়ে করা আ’পি’লের যুক্তি’গুলো হলো-

১. গত ৩০ সে’প্টেম্বর বরগু’নার দা’য়রা আ’দাল’তে যে রায় ঘো’ষ’ণা করা হ’ছে তা আইন, ঘটনা এবং পারি’পার্শ্বি’কতা বি’বেচ’নায় একটি খা’রা’প নজি’র তৈ’রি করে’ছে।

২. প্রাথ’মিক’ভাবে আপি’লকা’রী (মিন্নি) এই মা’ম’লায় সা’ক্ষী ছি’ল। পরে তা’কে মা’ম’লার আ’সা’মি করা হ’য়েছে। তাকে ৫ দিন পু’লিশ রি’মা’ন্ডে রা’খা হয়ে’ছি’ল। ম্যা’জি’স্ট্রেট আ’দালত রি’মা’ন্ডের মধ্য’বর্তী স’ময়ে ‘ফি’ল্মি স্টাই’লে’ আইন’বহির্ভু’তভা’বে তার স্বী’কা’রোক্তি’মূলক জবা’নব’ন্দি রেক’র্ড করে। যার কারণে ওই রা’য়টি বা’তিল’যো’গ্য।

৩. মা’ম’লা’র চা’র্জ’শিটে ৭৫ জন সা’ক্ষী রাখা হয়ে’ছিল। এর মধ্যে ৭, ১৩, ১৪ এবং ১৭ নম্বর সা’ক্ষী নি’জেদে’র চা’ক্ষু’ষ সা’ক্ষী দা’বি করা স’ত্ত্বেও তাদে’র তথ্য-প্র’মা’ণ ছিল প’ক্ষপা’তদু’ষ্ট। তাই ওই রা’য়টি বা’তি’ল’যোগ্য।

৪. মি’ন্নি এ মা’ম’লা’র গু’রুত্ব’পূর্ণ ও নির্ভ’র’যো’গ্য সা’ক্ষী ছিলেন। কিন্তু মা’ম’লা’র ত’দ’ন্ত কর্ম’ক’র্তা তা’কে অ’পরা’ধী হি’সেবে সা’জা প্র’দান করে রায় ঘো’ষণা করায় তা বা’তি’লযো’গ্য।

৫. মা’ম’লার ত’দন্ত’কারী কর্মকর্তা অ’স্ব’চ্ছতা’র সঙ্গে এ মা’ম’লার ত’দ’ন্ত করেন এবং কোনো’র’কম আ’ইনি ভি’ত্তি ছা’ড়া মা’ম’লার চা’র্জশি’ট ‘দাখি’ল করেন, যা মোটে’ই নির্ভ’র’যোগ্য নয়।

৬. মি’ন্নির বি’রু’দ্ধে আ’নী’ত অ’ভি’যোগ আমলে না নি’য়েই বর’গু’নার ‘দা’য়রা জ’জ আ’দাল’ত তার বি’রু’দ্ধে অ’ভি’যোগ গঠন করেন। এখানে ফৌ’জ’দারি কার্য’বিধি’র ৩৪২ ধা’রা সঠি’ক’ভাবে অনু’সরণ করা হয়নি। যা তা’কে চরম’ভা’ ক্ষ’তি’গ্র’স্ত করেছে। ৭. আই’নের সঠিক অ’নুসর’ণের অ’ভাবে এ মা’ম’লায় ‘মিন্নি নিজে’কে রক্ষায় উপ’যু’ক্ত সুযো’গ পা’য়নি।

৮. মা’ম’লা দা’য়ে’রের স’ময় বা’দী (রি’ফা’তের বাবা) জানান, ঘট’না’স্থল থে’কে মিন্নি রি’ফা’তকে বরগু’না জে’নারে’ল হাস’পা’তালে রিক’শাযো’গে এনে ভ’র্তি’ ক’রেন এবং মিন্নি’কে এ’কমা’ত্র সা’ক্ষী করা হয়। কি’ন্তু পরব”র্তীতে মা’ম’লার ত’দ’ন্ত শে’ষে মি’ন্নি’কে আ’সা’মি করে দ’ণ্ড দেয়া হয়, এতে করে মি’ন্নি প’রিস্থি’তির শি’কা’র হয়ে’ছেন।

৯. আ’দাল’ত (বরগুনার) স’ন্দে’হপূর্ণ, মৌখি’ক সাক্ষ্য’ এবং ধার’ণানি’র্ভর অন্যান্য পা’রি’পা’র্শ্বিকতা বি’বে’চনায় এ রায় দি’য়েছেন, যা বাতি’লযোগ্য।

১০. ওই ঘ’টনায় ‘ক্লো’জ ‘সা’র্কি’ট (সিসি) ক্যা’মেরা’র তথ্য থেকে এটা স্প’ষ্ট দে’খা গেছে যে, সে বা’রবার তার স্বা’মী রিফা’ত’কে আ’ক্র’ম’ণ’রীদে’র হাত থেকে বাঁ’চা’নো’র চেষ্টা ক’রেছে’ন। কিন্তু আদালত তার রা’য়ে মিন্নি রি’ফাত’কে বাঁচানো’র চেষ্টা করে’নি বলে উল্লে’খ করেছেন। অথচ এসব স্প’ষ্ট হও’য়া স’ত্ত্বেও আ’দালত আ’গপ্র’বণ হয়ে মি’ন্নি’কে সা’জা’প্রদানে’র রায় ঘো’ষণা করেছেন। তাই এ রায় বা’তিল’যোগ্য।

১১. মি’ন্নিকে সা’জাপ্র’দা’নে’র ঘটনা অনুমান ও ধার’ণা’নি’র্ভর। এ মাম’লা’য় সা’ক্ষী’দের জেরাও বি’বেচনা করা হয়নি। ফলে মিন্নি’কে অ’প’রা’ধী সা’ব্য’স্ত করে সা’জা সংক্রা’ন্ত আ’দালতে’র রায়’টি ভু’ল সি’দ্ধা’ন্ত।

১২. মি’ন্নির বি’রু’দ্ধে রাষ্ট্র’প’ক্ষের আই’নজী’বী’রা স’ন্দে’হা’তীত’ভাবে অ’ভিযো’গ প্রমাণ কর’তে পারেন’নি। ১৩. যে’কো’নো দৃ’ষ্টি’কো’ণ থেকে বি’চারিক আদা’ল’তের পক্ষ থেকে মি’ন্নিকে সা’জাপ্র’দানে’র বিষ’য়টি নির্ভ’রযো’গ্য না হও’য়ায় এ রায় বাতি’লযো’গ্য।

১৪. আ’পি’লকা’রীকে প্র’হস’নমূ’লক ও অ’যৌ”ক্তিক’ভাবে সাজা প্র’ন করা হয়েছে। ১৫. রা’ষ্ট্রপক্ষের সা’ক্ষীরা রাষ্ট্র’পক্ষে’র স্বা’র্থ হাসিলে’র জন্য এই মা’ম’লায় অতি’র’ঞ্জিত করে’ছেন। ১৬. আ’পিল’কারীকে দো’ষী সা’ব্য’স্ত করা ব্যতী’ত বি’চারক এই মা’ম’লা’য় অন্য আর কিছুই বি’বেচ’না ক’রেন’নি। ১৭. দ’ণ্ডবি’ধি আই’নের ৩০২ ধা’রা প্রতিষ্ঠি’ত না হও’য়ায় আ’পিল’কারী এ মা’ম’লা’য় খা’লাস পা’বেন।

১৮. সম’য়ে স’ময়ে এ মা’ম’লার যু’ক্ত হওয়া সা’ক্ষী’দের ওপর নি’র্ভর করে সাজা দেয়া হয়ে’ছে, কিন্তু সেসব সা’ক্ষী’রা বিশ্বা’স’যোগ্য ছিল না।

১৯. পুলিশ বা ম্যা’জি’স্ট্রেটে’র কাছে সাক্ষী’রা বিভি’ন্ন বক্তব্য দেয়া’য় সেসব সা’ক্ষীরা মো’টেও নি’র্ভরযো’গ্য ছিল না। ২০. অগ্র’হণযো’গ্য প’দ্ধতি অ’নুস’রণ করে এ মা’ম’লা’র বিচা’র’প্র’ক্রিয়া পরি’চা’ত হয়েছে।

২১. যেকো’নো দৃষ্টি’কো’ণ থেকে এ মা’ম’লা’র ঘট’না, পা’রিপা’র্শ্বিক’তা, তথ্য-প্র’মা’ণের ওপর নির্ভ’র করে রা’ষ্ট্র’পক্ষ (প্রসিকিউশন) সন্দে’হাতীত’ভা’বে মা’ম’লা’র অ’ভি’গ প্র’মা’ণে ব্য’র্থ হ’য়েছে। তাই এ মা’ম’লায় মি’ন্নি খা’লা’স পা’ওয়া’র যোগ্য।