সড়কে কড়াকড়ি, দৌরাত্ম্য কমেছে ব্যক্তিগত গাড়ির

করোনার সংক্রমণ বিস্তার রোধে সাত দিনের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। এ বিধিনিষেধের দ্বিতীয় দিনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়াকড়ি নজরদারিতে ব্যক্তিগত গাড়ির দৌরাত্ম কমেছে। শুক্রবার ছুটির দিন হওয়ায় সকালে ঢাকার সড়কগুলো গতকালের তুলনায় আরও বেশি ফাঁকা ছিল। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত রিকশা ও ব্যক্তিগত গাড়ি কম চোখে পড়েছে।

সরেজমিনে রাজধানীর মিরপুর, বনানী, বিমানবন্দর সড়ক, প্রগতি সরণি, মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার, শাহবাগ, মগবাজার ও শান্তিনগর এলাকা ঘুরে দেখা যায়-এসব সড়কে গাড়ির সংখ্যা কম। যে কয়টি গাড়ি বের হয়েছিল সেগুলোকে আবার পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মধ্যে পড়তে হয়েছে।

এদিকে নিয়ম ভেঙে রাস্তায় বের হওয়ায় ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগ ৬৮টি গাড়িকে ১ লাখ ১৯ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা করেছে। পাশাপাশি রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ৩২০ জনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। মোবাইল কোর্ট জরিমানা করেছে ২০৮ জনকে।

কঠোর লকডাউনের প্রথম দিনেও ব্যক্তিগত গাড়ি ও মোটরসাইকেল দাপিয়ে বেড়াচ্ছিল রাজধানী। তবে সেদিন জরিমানা গুনতে হয়েছে অনেক যানকে। মিরপুর ট্রাফিক বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মো. সোহেল রানা বলেন, আজকে রাস্তায় ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা কম, যেসব গাড়ি বের হয়েছে বেশিরভাগ জরুরি প্রয়োজনে।