আমরা ট্রেনে যুগোপযোগী সেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি : রেলমন্ত্রী

ট্রেনে আধুনিক প্রযুক্তির যুগোপযোগী মানসম্মত সেবা দেওয়ার জন্য শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে দাবি করেছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। আজ বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) কমলাপুর রেলস্টেশন পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এই দাবি করেন তিনি।

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার ভোগান্তি নিয়ে রেলমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মন্ত্রী বলেন, ‘ট্রেনের টিকিট কাটতে যে ভোগান্তি হচ্ছে, সেটা অস্বাভাবিক কিছু না।’ তিনি বলেন, ‘৪০ থেকে ৫০ লাখ লোক যদি একসঙ্গে টিকিট কাটার চেষ্টা করেন, তাহলে তো সমস্যা হবেই। ট্রেনের সিট ক্যাপাসিটি থাকে ৭০০, সেখানে টিকিট বিক্রি হচ্ছে ৩৫০টা। মানুষের যে চাপ, সেটা তো সামাল দিতে পারা কঠিন।’

আন্ত নগর ট্রেনগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মানা হলেও লোকাল ট্রেনগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি একেবারেই মানা হচ্ছে না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, লোকাল ট্রেনের স্বাস্থ্যবিধি না মানার আশঙ্কা আমাদের ছিল। কারণ লোকাল ট্রেন প্রতিটি স্টেশনে থামে। সেখান থেকে প্রচুর যাত্রী ওঠে।

এটি বন্ধ করা গেলে লোকাল ট্রেনগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মানানো যাবে। তবে ট্রেনে আমরা একটি আধুনিক প্রযুক্তির যুগোপযোগী মানসম্মত সেবা দেওয়ার জন্য শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি।