বিয়ে বাঁচাতে আদালতে রোশান, সমন পেয়েও যাননি শ্রাবন্তী

তৃতীয় স্বামী রোশান সিংয়ের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তই নিয়ে নিয়েছেন টালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি। বেশ কয়েক মাস ধরেই তারা আলাদা থাকেন। রোশান শ্রাবন্তীকে ছাড়তে চান না। সেজন্য তিনি পশ্চিমবঙ্গের শিয়ালদহের ফাস্টট্র্যাক আদালতে মামলা করেছেন। পূর্বনির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী বুধবার দুজনেরই আদালতে হাজির হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু রোশান সিং উপস্থিত হলেও যাননি শ্রাবন্তী। কেন আসেননি, সে বিষয়ে তিনি নিজে কিছু বলেননি। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের শ্রাবন্তীর আইনজীবী শ্যামল মণ্ডল এ বিষয়ে বলেন, বুধবার শ্রাবন্তী চ‌্যাটার্জি আদালতে হাজির হননি। সমন পাওয়ার কথা স্বীকার করেছেন আইনজীবী।

লকডাউন থাকায় আদালতে যাননি শ্রাবন্তী। এদিকে শ্রাবন্তীর অনুপস্থিতির কারণে সংশয়ে আছেন রোশান সিং ও তার আইনজীবী। তাদের দাবি, ‘দ্বিতীয় শুনানিতেও উপস্থিত না হলে নিয়ম অনুসারে এক তরফা শুনানি হওয়া উচিত। কারণ আদালতে রোশান উপস্থিত ছিলেন।’

উল্লেখ্য, রোশান সিং তার মামলায় বলেছেন, গত ১২ এপ্রিল ই-মেইল ও হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে শ্রাবন্তীকে পুনরায় সংসার শুরুর অনুরোধ করেন তিনি। কিন্তু ২৬ এপ্রিল এর উত্তরে শ্রাবন্তী জানান, তিনি সংসার শুরু করতে রাজি নন। এরপর সোমবার শিয়ালদহের ফাস্টট্র্যাক আদালতে মামলা দায়ের করেন রোশান। তার দাবি,

শ্রাবন্তীর সঙ্গে তার কোনো তিক্ততা নেই। তাই তিনি পুনরায় সংসার শুরু করতে চান। এদিকে শোনা যাচ্ছে শ্রাবন্তী আর রোশানের সংসারে আসতে চাইছেন না। ইতোমধ্যে নতুন প্রেমেও মজেছেন বলে শোনা যায়। তবে রোশান এখনো চান শ্রাবন্তীকে নিয়েই থাকতে।

প্রসঙ্গত, শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি সর্বপ্রথম বিয়ে করেছিলেন নির্মাতা রাজীব বিশ্বাসকে। ২০০৩ সালে তাদের বিয়ে হয়। এরপর ২০১৬ সালে বিবাহবিচ্ছেদ করেন তারা। একই বছর শ্রাবন্তী বিয়ে করেন মডেল কৃষাণ বিরাজকে। সে সংসার মাত্র এক বছর টিকেছিল। সর্বশেষ ২০১৯ সালে রোশান সিংকে বিয়ে করেছিলেন শ্রাবন্তী।