স্বাস্থ্যবিধি না মানলে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২০৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা গতকাল (শুক্রবার) ১৮৭ জন ছিল। সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে করোনায় মোট প্রাণহানির সংখ্যা ১৭ হাজার ৬৬৯ জন।

নতুন খবর হচ্ছে, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে হাসপাতালের শয্যা প্রায় শেষ হয়ে আসছে। চিকিৎসা সেবা দিতে দিতে ডাক্তাররাও ক্লান্ত। শনিবার (১৭ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলমের লেখা বইয়ের মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিদিন নির্দেশনা দিচ্ছেন। তার নির্দেশনায় নতুন করে চার হাজার চিকিৎসক নিয়োগ হচ্ছে। চার হাজার নার্স নিয়োগ হচ্ছে। আমরা যতই নিয়োগ দিই না কেন সংক্রমণের হার যদি তিন-চারগুণ বেড়ে যায়, ১০ থেকে ১৫ হাজার শয্যার পরিবর্তে ৪০ হাজার রোগী হয়, তখন সবাইকে চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হবে না। কাজেই সমালোচনা যাই করেন, বাস্তবতা হচ্ছে এটাই।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, অনেকেই আমাদের অনেকভাবে সমালোচনা করে। কিন্তু চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে হাসপাতাল। যারা সমালোচক তারা হাসপাতালে এসে চিকিৎসা দিচ্ছে না। সমালোচনা না করে কিভাবে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করা যায়, সংক্রমণের উৎপত্তি স্থান চিহ্নিত করে সবার সহযোগিতায় এটা নিয়ন্ত্রণে কাজ করা উচিত। কাজেই আমি তাদের আহ্বান করব এই সময়ে সমালোচনা না করে সংক্রমণ প্রতিরোধ একযোগে কাজ করার জন্য।

ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য ও শিক্ষা সচিব আলী নূর, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশীদ আলম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ডা. একেএম মোশাররফ হোসেনসহ বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজের সার্জনরা।