অন্যের ভূখণ্ড দখলের বাসনা তুরস্কের নেই: এরদোগান

গ্রিসের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিকোস ডেন্ডিয়াস প্রশংসায় ভাসিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানকে। তুর্কি প্রেসিডেন্ট সম্পর্কে তিনি বলেন, এরদোগান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নেতা, যিনি অনেক কিছুই করেছেন। নতুন খবর হচ্ছে, জোর করে অন্যের ভূমি দখলের ইচ্ছা তুরস্কের নেই জানিয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন,

অন্য কোনো দেশের ভূখণ্ড দখল এবং সার্বভৌমত্ব, ঐক্য ও সংহতি বিনষ্ঠের কোনো বাসনা তুরস্কের নেই। খবর ডেইলি সাবাহর। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বলেন, যারা তুরস্কের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখে চলতে চান, আমরা তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য প্রস্তুত রয়েছি।

শুক্রবার তুরস্কের ন্যাশনাল ডিফেন্স ইউনিভার্সিটিতে এক বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। লিবিয়া প্রসঙ্গে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বলেন, লিবিয়াকে নিয়ে ক্ষমতার ভারসাম্য বিনষ্ট করে দিয়েছি আমরা। লিবিয়া ঘিরে বিশ্ব সম্প্রদায় যে কার্ড খেলছিল, সেটি নস্যাৎ করতে সক্ষম হয়েছে তুরস্ক।

‘শুধু ভূমধ্যসাগরেই নয়, গোটা বিশ্বে লিবিয়াকে নিয়ে যে খেলা চলছিল, সেটি নস্যাৎ করে কূটনৈতিক এবং সামরিকভাবে সফল হয়েছে তুরস্ক।’ এ সময় প্রতিরক্ষা খাতে তুরস্কের সফলতার কথাও তুলে ধরেন এরদোগান। বলেন, গত ১৫-২০ বছর ধরে প্রতিরক্ষা প্রযুক্তিতে তুরস্ক কতদূর এগিয়েছে এটি বিশ্ববাসী দেখেছে।