অয়েলি বা তেলতেলে ত্বকের জন্য বেস্ট দশটি ঘরের তৈরি স্ক্রাব

যদি আপনার অয়েলি বা তেলতেলে স্কিন হয় তাহলে আপনার স্কিনের একটু বেশিই যত্ন দরকার। বিশেষ করে এখন যখন মাঝেমাঝেই খুব কড়া রোদ উঠছে, ঘাম হচ্ছে, তখন তো বিশেষ ভাবে কেয়ার করা দরকার। তেলতেলে স্কিন হলে প্রধান যে সমস্যা তা হল র্যা শ আর ব্ল্যাকহেডস। আর এর মূলে থাকে মুখে জমে থাকা অতিরিক্ত ময়লা তেল। সমস্যার সমাধান তাই এই তেল বের করেই করতে হবে, স্ক্রাব করার মাধ্যমে। আর তার জন্য সবচেয়ে ভাল হল বাড়িতে তৈরি স্ক্রাব।

১. কফি স্ক্রাব উপকরণঃ ১ চামচ কফি গুঁড়ো ১ বড় চামচ দই কফি গুঁড়ো, ১ বড় চামচ দই

পদ্ধতিঃ কফি গুঁড়ো আর দই ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। কফি গুঁড়ো যেন একটু দানা দানা থাকে এমন ভাবে মেশাতে হবে। একদম স্মুথ পেস্ট হলে হবে না। এবার এই পেস্ট মুখে নিয়ে হাল্কা হাতে ম্যাসাজ করুন। ৫ মিনিট মতো করলেই হবে। তারপর ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন। এটি সপ্তাহে দু’ দিন করলে খুব ভালো উপকার পাবেন। আপনারা চাইলে দইয়ের বদলে মধুও নিতে পারেন।

২. সৈন্ধব লবণ আর লেবুর রসের স্ক্রাব উপকরণঃ ২ চামচ সৈন্ধব লবণ ১ ছোট চামচ পাতিলেবুর রস একটা ডিমের সাদা অংশ

পদ্ধতিঃ
তিনটে উপকরণ ভালো করে মিশিয়ে একটা পেস্ট করে নিন। তারপর মুখে মেখে ছয় থেকে সাত মিনিট হাল্কা হাতে ম্যাসাজ করুন। এরপর প্রথমে একটু উষ্ণ জলে মুখ ধুয়ে তারপর ঠাণ্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন। অয়েলি স্কিনের জন্য এটি ম্যাজিকের মতো কাজ করে। সৈন্ধব লবণ যেখানে মরা চামড়া তুলে দেয়, লেবুর রস সেখানে আলাদা জেল্লা আনে। আর ডিম আপনার স্কিন টাইট করে। এটিও সপ্তাহে দুই দিন করলে এক মাসেই পার্থক্য বুঝতে পারবেন।

৩. টম্যাটো স্ক্রাব টম্যাটোর দানা ন্যাচারাল স্ক্রাবার হিসেবে খুবই ভালো। মুখ পরিষ্কার তো করেই। তার সঙ্গে খুব ভালো জেল্লা আনে। উপকরণঃ একটা টম্যাটো ২ চামচ চিনি

পদ্ধতিঃ একটা টম্যাটো নিয়ে হাতেই খানিক চটকে নিন। এর মধ্যে এবার চিনি দিয়ে একটা মিশ্রণ করে নিন। চিনি যেন পুরো গলে না যায়। এই মিশ্রণ এবার মুখে নিয়ে মিনিট দশেক মতো হাল্কা হাতে ম্যাসাজ করুন। চিনি আর টম্যাটোর দানা মুখ থেকে অতিরিক্ত তেল খুব সহজেই বের করে দেবে। ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে তিন দিন করতে পারেন। কয়েক সপ্তাহ করলেই বুঝবেন এটি কত ভালো স্ক্রাবার।

৪. পাকা পেঁপের স্ক্রাব পেঁপে বড় পোর্স গুটিয়ে আনে। ফলে অতিরিক্ত তেল বের হওয়া বন্ধ হয়। আর এটি স্কিন টাইট করতেও ভাল কাজ দেয়। উপকরণঃ হাফ কাপ পেঁপের পাল্প হাফ চামচ লেবুর রস

পদ্ধতিঃ
একটা পাকা পেঁপে নিয়ে হাফ কাপ মতো পাল্প বের করে নিন। এর সঙ্গে ওই হাফ চামচ মতো পাতিলেবুর রস নিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ এবার মুখে, গলায় ভাল করে মেখে নিন আর দশ মিনিট মতো ম্যাসাজ করে নিন। তারপর ঠাণ্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে এক দিন করলেই যথেষ্ট।

৫. মুসুরির ডালের স্ক্রাব মুসুরির ডাল খেতে যতটা ভালো, এর স্ক্রাবার হিসেবে উপকারও কিন্তু ততই ভালো। ডেড স্কিন সেল তুলতে এর জুড়ি মেলা ভার।

উপকরণঃ ২ বড় চামচ মুসুরির ডাল বাটা ১ চামচ দই, সামান্য হলুদ গুঁড়ো
পদ্ধতিঃ মুসুরির ডাল আগের দিন রাতে ভিজিয়ে পরের দিন বেটে নিন। এর মধ্যে এবার দই আর হলুদ গুঁড়ো নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। একটা স্মুথ পেস্ট হবে। এই পেস্ট মুখে, গলায় লাগিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করে নিন। এবার হাল্কা গরম জলে মুখ ধুয়ে নিলেই দেখবেন মুখ কত গ্লো করছে। সপ্তাহে যত দিন খুশি করতে পারেন।

৬. আমন্ড আর মধুর স্ক্রাব আমন্ড শরীরের জন্য ভাল জেনে রোজ তো খান। কিন্তু মধুর সঙ্গে মিশিয়ে মুখে দিলে যে কত ভালো স্ক্রাবার হতে পারেন জানেন!

উপকরণঃ মধু, আমন্ড, লেবুর রস ২ চামচ মধু ১ চামচ আমন্ড গুঁড়ো ১ চামচ লেবুর রস
পদ্ধতিঃ তিনটে উপকরণ খুব ভালো করে মিশিয়ে নিন। মুখে এই মিশ্রণ মেখে পনেরো মিনিট মতো স্ক্রাব করুন। তারপর ঠাণ্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন। আমন্ড মুখ থেকে খুব তাড়াতাড়ি ডেড স্কিন সেল তুলে দেয়। সপ্তাহে এক দিন করে দুই মাস করুন। তফাৎ বুঝতে পারবেন।

৭. চিনির স্ক্রাব শুধু চিনিই আপনার ত্বকের জন্য খুব ভালো স্ক্রাবার হতে পারে।

উপকরণঃ ১ চামচ চিনি ১ চামচ মধু
পদ্ধতিঃ আপনি চাইলে চিনি হাল্কা গুঁড়ো করে নিতে পারেন। তবে দানাদার চিনিই সবচেয়ে ভালো। এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ পারলে রোজ মুখে নিয়ে স্ক্রাব করুন হাল্কা করে। তারপর ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন। দুই সপ্তাহে আপনার স্কিন আপনি নিজেই চিনতে পারবেন না।

৮. শশার স্ক্রাব শশার দানাও খুব ভালো স্ক্রাবার। এর মধ্যে স্কিনকে ডি-ট্যান করার ক্ষমতাও আছে অনেক বেশি। উপকরণঃ একটা ছোট শশা পদ্ধতিঃ
একটা কচি শশা নিয়ে সেটি একটা পাল্পের মতো করে নিন। এই পাল্প মুখে নিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করুন। দশ মিনিট করলেই হবে। তারপর হাল্কা উষ্ণ জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। চাইলে এটি আপনি রোজই করতে পারেন। এটি মুখের তেল বের করবে, র্যা শ হওয়া কমাবে, আলাদা জেল্লা আনবে।

৯. ওটমিল স্ক্রাব শরীর সুস্থ থাকতে আমরা সকলেই ওটস খাই। কিন্তু ওটস স্ক্রাবার হিসেবে এবার ব্যবহার করে দেখুন।

উপকরণঃ ১ বড় চামচ ওটসমিল ১ চামচ মধু খানিক দই পদ্ধতিঃ ওটসমিল গুঁড়ো করবেন না। যেমন পাওয়া যায় কিনতে সেরকমই কিনে তার সঙ্গে মধু আর দই মিশিয়ে একটা পেস্ট তৈরি করুন। এই মিশ্রণ এবার মুখে আর গলায় ভাল করে মেখে ১৫ মিনিট ধরে স্ক্রাব করুন। তারপর ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে তিন দিন করতে পারেন। অনবদ্য ফল পাবেন। এটি অতিরিক্ত তেল নিঃসরণ একদম কমিয়ে দেয়।

১০. চালের গুঁড়ো উপকরণঃ হাফ কাপ চালের গুঁড়ো অল্প বেসন মধু পদ্ধতিঃ চালের গুঁড়ো কিনে আনুন। এর সঙ্গে মধু আর অল্প বেসন মিশিয়ে জল দিয়ে একটা মিশ্রণ করে নিন। মিশ্রণ যেন দানাদার থাকে। এই পেস্ট এবার মুখে ভাল করে সময় নিয়ে ম্যাসাজ করুন। তারপর ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে এক দিন করাই যথেষ্ট।

এই দশটি অস্ত্র আপনার হাতে তুলে দিলাম তেলতেলে স্কিনের সঙ্গে লড়াই করার জন্য। আপনার সুবিধে মতো যেটা খুশি ব্যবহার করুন আর অতিরিক্ত তেলকে বলুন গুড বাই।