তিশা-ইরফানকে হ’ত্যার হু’মকি

অ’ভিনেত্রী নুসরাত ইম’রোজ তিশা ও ইরফান সাজ্জাদকে হ’ত্যার হু’মকি দেয়া হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিভিন্ন আইডি থেকে এই হ’ত্যার হু’মকি দেয়া হয়। এই ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মা’মলা করার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।

সম্প্রতি দুর্গাপূজা উপলক্ষে বিশেষ টেলিফিল্ম ‘বিজয়া’র শুটিংয়ের কয়েকটি স্থিরচিত্র ফেসবুকে প্রকাশ করার পর তাদের হ’ত্যার হু’মকি দেয়া হয়। এই টেলিফিল্মের প্রধান চরিত্রে অ’ভিনয় করেছেন তিশা। আর সহ অ’ভিনেতা হিসেবে আছেন ইরফান।

এদিকে, নাট’কের মাধ্যমে সনাতনী সম্প্রদায়কে কটাক্ষ এবং ধ’র্মান্তকরণ ও সাম্প্রদায়িকতা উসকে দেয়ার অ’ভিযোগ করে তিশা ও তার সহ-অ’ভিনেতা,

পরিচালক এবং প্রযোজকের বি’রুদ্ধে অ’ভিযোগ এনে তাদের আইনি নোটিশও পাঠানো হয়েছে। সোমবার (১২ অক্টোবর) লিটন কৃষ্ণ দাসের পক্ষে এ লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন আইনজীবী সুমন কুমা’র রায়।

লিগ্যাল নোটিশপ্রাপ্তির ৭ দিনের মধ্যে বিতর্কিত ‘বিজয়া’ নাট’কটি প্রত্যাহার করতে নোটিশে উল্লিখিত অ’ভিযু’ক্তদের প্রতি বিনীত অনুরোধ করা হয়েছে। অন্যথায় তাদের বি’রুদ্ধে দেশে প্রচলিত যে কোনো দেওয়ানি ও ফৌজদারি আ’দালতের আশ্রয় নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবী।

এ বিষয়ে তিশা জানান, নোটিশের ব্যাপারে অবগত নই। একটা কথা বলতে চাই ধ’র্মে আ’ঘাত লাগে এ রকম কাজ কখনো করিনি, ভবিষ্যতেও করব না। নাট’কটি প্রচার হলে আগে দেখু’ন তারপর মন্তব্য করুন।

নাট’কটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্টের ডেপুটি সিইও তাজুল ইস’লামের জানান, ‘বিজয়া’ নিয়ে অশ্লীল মন্তব্যকারী এবং হ’ত্যা হু’মকিদানকারীর বি’রুদ্ধে ক্রাউন কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা নিচ্ছে। এরই মধ্যে বেশকিছু অ’প’রাধীর পরিচয় চিহ্নিত করা হয়েছে। আম’রা মা’মলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।