সাফ আয়োজন থেকে সরে দাঁড়ালো বাংলাদেশ

এবার দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপখ্যাত সাফ ফুটবলের এবারের আসর হওয়ার কথা ছিলো বাংলাদেশে। আগামী ৩০ আগস্ট থেকে দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবলের সর্বোচ্চ এই টুর্নামেন্ট হওয়ার কথা ছিল। কিন্ত যেখানে হওয়ার কথা ছিলো সেই বাংলাদেশই টুর্নামেন্ট আয়োজন করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে।

যার ফলে শঙ্কায় পড়ে গেলো এবারের আসর মাঠে গড়ানো। এদিকে দিন কয়েক আগে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন আনুষ্ঠানিকভাবে নিজেদের নাম স্বাগতিক হিসেবে প্রত্যাহার করে নিয়েছে। বাংলাদেশের চলমান ক’রোনা পরিস্থিতি, ভেন্যু সংকটসহ সামগ্রিক বিষয় বিবেচনায় বাফুফের প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত।

টুর্নামেন্ট শুরুর মাত্র ১ মাস আগে বাংলাদেশের স্বাগতিক প্রত্যাহার বড় অনিশ্চয়তার মধ্যে ফেলেছে টুর্নামেন্টকে। যদিও ইতোমধ্যেই নেপাল টুর্নামেন্ট আয়োজনে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। এ নিয়ে ইতোমধ্যে কাজও শুরু করেছে দেশটি। নেপাল স্বাগতিক হতে রাজি হলেও মূল বাধা স্পন্সর ও আর্থিক সংকট। সাফের বিগত আসরগুলোর

পৃষ্ঠপোষক ছিল লাগাডিয়ার স্পোর্টস। ফরাসি কোম্পানির সাফের সাথে চুক্তি নবায়ন না করায় সংকটে পড়ে সাফ। গত এক বছরে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য কোনো স্পন্সর খুঁজে পায়নি সাফ৷ নেপাল স্বাগতিক হওয়ার আগ্রহের পাশাপাশি স্পন্সরও খুঁজছে। এই স্বল্প সময়ের মধ্যে সব কিছু পাওয়া কঠিনই। তাই আসন্ন সাফ বড় অনিশ্চয়তার মধ্যে।