পূর্ব শত্রুতার জের, একই পরিবারের পাঁচজনকে কুপিয়ে জখম

আড়াইহাজারে যুবলীগ নেতা ওবায়দুল ইসলাম বেদেন বাহিনীর হামলায় একই পরিবারের পাঁচজনসহ আহত ৮ আহত হয়েছে। শনিবার (২৪ জুলাই) বিকেলে উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের কালাপাহাড়িয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে বাতেন নামের একজনকে ঢাকায় এবং বাকীদের আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনার দিন সকাল থেকে ওই গ্রামের বাতেন ও বাছেদ (গান্ধী) মিয়ার সাড়ে ৪ শতাংশ জমি মাপা হয়। মাপা শেষে বিকেলের দিকে বাড়ি যাওয়ার পথে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একই গ্রামের বাসিন্দা ও উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক ওবায়দুল ইসলাম বাদল ওরফে বেদনের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী বাতেনের

লোকজনের ওপর দা, ছুরি, টেঁটাসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। হামলায় একে একে নারী ও পুরুষসহ ৮ জনকে আহত করে। এক পর্যায়ে হামলায় ধাওয়া খেয়ে গ্রামের সাবেক প্রধান শিক্ষক ওহিদুর রহমান বাচ্চুর বাড়িতে আশ্রয় নিলে সন্ত্রাসীরা ওই খানে গিয়েও হামলা চালায় এবং ভাঙচুর করে।

আহতরা হলেন, বাতেন (৫৩), তার ছেলে ইমরান হোসেন (৩০), জীবন (৩৩), হোসাইন (২৮), হাসান (২৪) এবং স্বজন ফয়সাল (১১), বাবু (৩৫) ও হানিফা (৩০)। এদের মধ্যে একজনকে ঢাকায় এবং বাকীদের আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা সবাই সরকারদলীয় সমর্থক বলে জানা গেছে।

বাতেনের ভাতিজা রহিম আলী জানান, পূর্ব শক্রতার জের ধরে ওবায়দুল হক বাদলের লোকেরা আমাদের ওপর আর্তকিত হামলা চালায়। আমি এদের বিচার চাই। অভিযুক্ত ওবায়দুল হক বাদলের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে বন্ধ পাওয়া যায়।

আড়াইহাজার থানার ওসি আনিচুর রহমান মোল্লা কালের কণ্ঠকে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।