স্বপ্নের মেট্রোরেলে দর্শকশূন্য ইত্যাদি

দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সভ্যতা, সংস্কৃতি, প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন ও জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানে বিভিন্ন সময় জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদির বিভিন্ন পর্বের চিত্রধারণ করা হয়েছে। সে ধারাবাহিকতায় এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে ঢাকার উত্তরার দিয়াবাড়িতে অবস্থিত মেট্রোরেল লাইন-৬-এর ডিপোতে।

১৬ জুলাই দেশের প্রথম দূর নিয়ন্ত্রিত বৈদ্যুতিক মেট্রোট্রেনের প্রথম গন্তব্যস্থল সুবিশাল ওয়ার্কশপে ধারণ করা হয় এ পর্বটি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে অনুষ্ঠানটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ফাগুন অডিও ভিশন। করোনার কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুষ্ঠানে কোনো দর্শককে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে,

এবারের অনুষ্ঠানে গান রয়েছে দুটি। গীতিকার মোহাম্মদ রফিকউজ্জামানের কথায়, মনোয়ার হোসেন টুটুলের সুরে, সংগীতশিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন গেয়েছেন একটি দেশাত্মবোধক গান। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া চিকিৎসকদের নৃত্যরত একটি গানের সঙ্গে শিল্পী তসিবাকেও দেখা যাবে এ পর্বে। শিল্পীর জন্য

সংগৃহীত একটি গান নতুন করে সংগীত পরিচালক নাভেদ পারভেজ। এবারের ইত্যাদিতে মেট্রোট্রেনের ইতিহাস, অগ্রগতি, এর বিভিন্ন কারিগরি দিক, সুবিধাগুলোর ওপর রয়েছে তিনটি তথ্যভিত্তিক প্রতিবেদন। আরও রয়েছে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার প্রকৌশলী মো. আমিনউল্লাহর ওপর একটি উদ্বুদ্ধকরণ প্রতিবেদন।

বিদেশি প্রতিবেদন পর্বে রয়েছে গ্রিসে ধারণকৃত অলিম্পিক স্টেডিয়ামের প্রায় ৩ হাজার বছরের পুরোনো ইতিহাস থেকে বর্তমান ইতিহাস নিয়ে ভিডিও ফিচার। দর্শক উপস্থিত না থাকলেও দর্শকপর্ব আয়োজন, প্রয়াত অভিনেতা আবদুল কাদেরের মৃত্যুর

পর ভাগ্নে আফজাল শরীফ আবারও ইত্যাদির মঞ্চে-এসবসহ বিভিন্ন সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে বেশকিছু নাট্যাংশও থাকবে অনুষ্ঠানে। বরাবরের মতো এবারও ইত্যাদির রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। অনুষ্ঠানটি বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে ৩০ জুলাই রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর প্রচার হবে।