ডেঙ্গি ও করোনা রোগীর চিকিৎসা এক হাসপাতালে নয়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গিজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ১০৫ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। যেটি চলতি বছরে এক দিনে সর্বোচ্চসংখ্যক ডেঙ্গি রোগীর হাসপাতালে ভর্তির রেকর্ড। এমতাবস্থায় ডেঙ্গি রোগীর চিকিৎসায় আলাদা হাসপাতাল নির্ধারণ করার উদ্যোগ নিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কনভেনশন সেন্টারে নির্মাণাধীন ফিল্ড হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, বাংলাদেশে ডেঙ্গির প্রকোপ বেড়েছে। প্রায় ১ হাজার ২০০ রোগী ইতোমধ্যে ভর্তি হয়েছে হাসপাতালে। আমরা একদিকে নন-কোভিড রোগীর চিকিৎসা, অন্যদিকে করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসা, অন্যদিকে টেস্ট ও ভ্যাকসিন সব মিলিয়ে একসঙ্গে করতে হচ্ছে। তাই আমরা আজকে বেশ কয়েকটি হাসপাতাল চিহ্নিত করেছি,

যেখানে ডেঙ্গি রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থা নেব। কারণ যেখানে করোনা রোগীর চিকিৎসা হয়, সেখানে ডেঙ্গি রোগীর চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব নয়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের (ডিজিএইচএস) হিসাবমতে, চলতি বছর জানুয়ারি থেকে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৬৭৯ জন ডেঙ্গি রোগী শনাক্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ঢাকার বাইরের ৪৭ জন। বাকিরা ঢাকার। চলতি মাসেই আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৩০৭ জন। গত জুন মাসে ২৭২ এবং মে মাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন ৪৩ জন।