ঈমামের বিরুদ্ধে মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

কুমিল্লার চান্দিনায় এক মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে আবুল বাশার (৫০) নামে এক মসজিদের ঈমামের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় আজ সোমবার (২৬ জুলাই) চান্দিনা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন মাদরাসাছাত্রীর পিতা জহিরুল ইসলাম। অভিযুক্ত আবুল বাশার উপজেলার বাতাঘাসী ইউনিয়নের শব্দলপুর গ্রামের মুন্সিবাড়ির মৃত মোতালেব মুন্সীর ছেলে। তিনি সুহিলপুর ইউনিয়নের তীরচর নয়াবাড়ি মসজিদের ঈমাম।

জানা যায়, ওই মাদরাসাছাত্রীকে প্রাইভেট পড়ানোর সময় গত ২২ জুলাই অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যান তিনি। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করে না পেয়ে পরদিন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে ছাত্রীর পরিবার। টানা দুই দিন অজ্ঞাত স্থানে মেয়েটিকে আটকে রেখে ধর্ষণ করেন শিক্ষক আবুল বাশার। একপর্যায়ে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে দুদিন পর তিনি তার ভাই আবু ইউসুফকে খবর দিয়ে তার হাতে মেয়েটিকে তুলে দিয়ে পালিয়ে যান।

এদিকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় অসুস্থ অবস্থায় মেয়েটিকে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তারের পরামর্শে কুমিল্লার ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়। চান্দিনা থানার ওসি শামসুদ্দিন মোহাম্মদ ইলিয়াছ জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। আসামি গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।