অবশেষে কোরআন শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করলো পাকিস্তান

কোরআন মাজিদ শিক্ষা করা ফরজ, শিখে ভুলে গেলে মারাত্মক গুনাহ; অশুদ্ধ বা ভুল পাঠ করলে কঠিন পাপের কারণ হতে পারে। তাই কোরআন বিশুদ্ধভাবে শেখা ও সুন্দরভাবে তিলাওয়াত করা জরুরি। নতুন খবর হচ্ছে, পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের স্কুলগুলোতে কোরআন শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত বাধ্যবাধকতা দেয়া হয়েছে। খবর জিও নিউজের। পাঞ্জাব সরকারের পক্ষ থেকে জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়, কুরআন বিষয়টিকে প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য বাধ্যতামূলক করা হলো। ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে,

প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পাঠ্যসূচিতে কুরআনের নাজেরা তেলাওয়াত বাধ্যতামূলক থাকবে। কুরআনের তর্জমার বিষয়টি গুরুত্ব পাবে ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত। এর আগে ২০১৭ সালে পাঞ্জাব সরকারের পক্ষ থেকে স্কুলগুলোতে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত কুরআনের নাজেরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল।