মসজিদুল হারাম জীবাণুমুক্ত করবে রোবট স্যানিটাইজার

করোনার কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পরে খুলে দেয়া হয় মুসলিম বিশ্বের পবিত্রতম স্থান মসজিদুল হারাম। তবে সেখানে প্রতিদিন কয়েক দফা জীবাণুমুক্তকরণের প্রক্রিয়া সবসময়েই চলমান রয়েছে। কিন্তু রোবট দিয়ে স্যানিটাইজার ছিটানো নতুন সংযোজন সত্যিই অবাক করার মত।

আরব নিউজের খবরে বলা হয়, প্রতিদিনের হাজারও দর্শনার্থী ও ইবাদতকারীদের জন্য করা হয়েছে রোবটের মাধ্যমে হ্যান্ড স্যানিটাইজিং এর ব্যবস্থা। এই কার্যক্রম উদ্বোধন করেন হারামাইনের প্রেসিডেন্ট শায়খ ড. আব্দুর রহমান সুদাইস। জীবাণুমুক্তকরণে রোবটটি সক্রিয়ভাবে স্যানিটাইজার ছিটিয়ে থাকে।

তবে পূর্বঘোষণা অনুযায়ী ১৮ অক্টোবর (রোববার) থেকে মক্কার মসজিদে হারাম নামাজের জন্য ৭৫% উন্মুক্ত করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছে হারামাইন কর্তৃপক্ষ। ওই দিন থেকে দৈনিক ১৫ হাজার মানুষ ওমরাহ পালনের সুযোগ পাবেন। নামাজের জামাতে ৪০ হাজার মুসল্লি অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

এদিকে মহামারীর কারণে এবার মুসলিমদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় সমাবেশ হজও সীমিত আকারে পালিত হয়েছে। করোনার প্রকোপ কমে আসায় ৪ অক্টোবর সকাল থেকে ওমরাহ পালনকারীদের জন্য মসজিদে হারাম খুলে দেয়া হয়। ওই দিন থেকে দৈনিক ছয় হাজার মুসল্লি উমরাহ পালন করছেন। আপাতত কাবা শরীফ স্পর্শ ও হাজরে আসওয়াদে চুমু খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।