পীরের অপকর্মে গর্ভবতী হলেন ১৬ বছরের কিশোরী

মাদারীপুরে এক পীরের লা’লশার শিকার হয়ে অ’ন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন এক ত’রুণী। সদর উপজেলার গাছবাড়িয়া এলাকার পীর ওয়াহিদ চানের ওই ত’রুণীর উপর লো’লুপ দৃষ্টি পড়ে এ ঘটনা ঘটায়। এক পর্যায় বিষয়টি এলাকাবাসী

জানতে পেরে ওই পীরকে চা’প প্রয়োগ করতে থাকেন। এতে উপায়ন্ত না দেখে ওই ত’রুণীকে বিয়ে করেন তিনি।স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই পীর ওয়াহিদ চানের বাড়ি ফরিদপুরের ভাংগা থানার বাকপুরার নামক স্থানে। বর্তমানে তিনি

মাদারীপুর সদর উপজেলারগাছবাড়িয়া এলাকায় আস্তানা গড়ে তুলেন। একসময়ে এলাকার সহজ সরল ও সাধারণ মানুষ তার ভক্ত ও মুরিদ হয়ে যায়। এই ভক্তদের মধ্যে থেকে এক ত’রুণীর উপরে লো’লুপ দৃষ্টি পড়ে পীর ওয়াহিদ চানের।

পরে ওই ত’রুণীকে বিয়ের প্র’লোভন দেখিয়ে শা’রীরিক স’ম্পর্ক গড়ে তুলেন। এতে ওই ত’রুণী এক পর্যায়ে অ’ন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। এর পরে এলাকার লোকজন বিষয়টি জানতে পেরে গত মঙ্গলবার পীরকে চা’প প্রয়োগ

করেন। উপায়ন্ত না দেখে ওই ত’রুণীকে বিয়ে করে তার গ্রামের বাড়ি নিয়ে যান। তবে এ ব্যাপারে অ’ভিযুক্ত পীর ওয়াহিদ চান বলেন, আমি ওই মে’য়েকে বিয়ে করেছি। সে এখন আড়াই মাসের গ’র্ভবতী। মাদারীপুরের অতিরিক্ত পু,লিশ সুপার

উত্তম প্রসাদ পাঠক বলেন, এ বিষয়ে যদি কেউ অ’ভিযোগ করেন তাহলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।