আলোচিত ওসি মনিরুজ্জামানের বদলি

পটুয়াখালীর মহিপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামানকে বদলি করা হয়েছে। পুলিশের নিয়মিত বদলির অংশ হিসেবে এ বদলির আদেশ দেওয়া হয়েছে বলে জেলা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। মহিপুর থানা সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ২ মার্চ পুলিশ পরিদর্শক মনিরুজ্জামান

মহিপুর থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিসেবে যোগদান করেন। যোগদানের পরপরই এক বালু ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মহিপুর প্রেস ক্লাব সভাপতির দায়ের করা মামলার আসামি গ্রেফতার নিয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের বিভিন্ন কর্মসূচির তোপের মুখে পড়েন।

এরপর স্বেচ্ছাচারী এবং জনগণের অকল্যাণমূলক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে কুয়াকাটা ও লতাচাপলী ইউনিয়নের একটি প্রভাবশালী রাজনৈতিক পরিবারের বিরুদ্ধে সোচ্চার হন। এসব ঘটনায় যেমন তার পক্ষে এলাকার মানুষের মৌন সমর্থন ছিল, তেমনি সমালোচনাও ছিল সমানে। আতঙ্ক ছিলেন ভূমি দস্যু ও চিহ্নিত অপরাধীদের।

ফলে অধিকাংশ মানুষ ওসি মনিরুজ্জামানকে মহিপুর থানায় দেখতে চাইলেও একটি সুবিধাবঞ্চিত প্রভাবশালী গোষ্ঠী তাকে সরাতে আদাজল খেয়ে মাঠে সক্রিয় ছিল। এর মধ্যে মহিপুর থানায় যোগদানের পরপরই করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়।

এ সময়ে জনসচেতনতার কাজে অংশগ্রহণের পাশাপাশি আতঙ্কিত এবং খাদ্য সংকটে থাকা মানুষজনের সহায়তায় মহিপুর থানার উপস্থিতি ছিল প্রশংসনীয়। এছাড়া কুয়াকাটায় অবস্থিত সাবমেরিন ক্যাবলের ল্যান্ডিং স্টেশনের নিরাপত্তা, কুয়াকাটা পৌরসভাসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়ন পরিষদের শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠান এবং একাধিক দাগি আসামি গ্রেফতার ছিল তার অন্যতম অর্জন।

জানা গেছে, কুয়াকাটা পৌরসভার ৭, ৮ এবং ৯নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরের মৃত্যুতে আগামী ৭ অক্টোবর উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ সময় পর্যন্ত ওসি মনিরুজ্জামান মহিপুর থানায় দায়িত্ব পালন করবেন।

কলাপাড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহম্মদ আলী মহিপুর থানার ওসি বদলির কথা স্বীকার করে যুগান্তরকে বলেন, তাকে পটুয়াখালী সদর থানায় বদলি করা হয়েছে।