নিজের যোগ্যতায় ২ বাংলার সিনেমাতেই অভিনয় করছেন মিথিলা

নাটক-মডেলিংয়ের জনপ্রিয় মুখ রাফিয়াত রশিদ মিথিলা চলচ্চিত্রেও বেশ সরব। ৩টি সিনেমার শুটিং

শেষ করেছেন, নতুন সিনেমার শুটিং শুরু হবে শিগগির, আলোচনা চলছে আরও সিনেমা নিয়ে।

সিনেমা, নাটক ও গানসহ নানা বিষয় নিয়ে মিথিলা কথা বলেছেন দ্য ডেইলি স্টারের সঙ্গে।

টেলিভিশন নাটকের প্রিয়মুখ হলেও আপনার এখনকার ব্যস্ততা সিনেমা নিয়ে। এখন থেকে কি শুধুই সিনেমায় কাজ করবেন?

নাটক করব না তা নয়। বিশেষ উৎসবে নাটক করব। এখন মনোযোগ সিনেমায়। বেছে কাজ করতে চাই। সেভাবেই এগোচ্ছি। রাজষি দে পরিচালিত কলকাতার সিনেমা ‘মায়া’র শুটিং ও ডাবিং শেষ করেছি। অনন্য মামুন পরিচালিত বাংলাদেশের সিনেমা ‘অমানুষ’র শুটিং শেষ হয়েছে।

এ ছাড়া অরুণাভ খাসনবিশ পরিচালিত কলকাতার সিনেমা ‘নীতিশাস্ত্র’র শুটিং শেষ করেছি কিছুদিন আগে। ‘নীতিশাস্ত্র’তে ডাক্তারের চরিত্রে অভিনয় করেছি। কলকাতায় শুটিং হয়েছে। সামনেই শুটিং শুরু হবে রিংগো ব্যানার্জীর নতুন সিনেমা ‘আ রিভার ইন হ্যাভেন’র।

‘মায়া’ নামের একটি সিনেমা আগামী বছর মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। কলকাতায় এখন ধারণক্ষমতার ৫০ ভাগ দর্শক হলে প্রবেশ করতে পারছেন। শতভাগ দর্শক যখন প্রবেশ করতে পারবেন তখনই ‘মায়া’ মুক্তির কথা রয়েছে।

২ বাংলার সিনেমাতেই অভিনয় করছেন। কাজের পার্থক্য কেমন?

গল্প বলায় আমরা কোনোভাবেই পিছিয়ে নেই। ভালো গল্প নির্ভর কাজ বাংলাদেশে হচ্ছে। মেধাবী পরিচালকও আছেন আমাদের। আমাদের সিনেমা হল কমছে দিন দিন। কলকাতায় ওরা টেকনিক্যালি একটু এগিয়ে। প্রি-প্রোডাকশনে আরও ডেভেলপ করতে হবে আমাদের। আর ভালো আর্ট ডিরেক্টর লাগবে।

আপনার স্বামী সৃজিত মুখোপাধ্যায় স্বনামধন্য পরিচালক। কিন্তু তার পরিচালনায় এখনও দেখা যায়নি আপনাকে।
এটা তো পরিচালক সিদ্ধান্ত নেবেন তার সিনেমায় কোন শিল্পী অভিনয় করবেন। এটা তার পূর্ণ স্বাধীনতা। এ বিষয়ে আমি বলতে পারি না। আমি তো বরং এজন্য খুশি যে ঘরের মানুষের কাজ করতে হয়নি। নিজের যোগ্যতায় কাজ করছি, অভিনয় করছি, চাকরি করছি, পিএইচডি করছি, লেখালেখি করছি। কখনও কখনও উপস্থাপনা ও গানও করছি। সবই আমার যোগ্যতায় করছি।

৩টি সিনেমার কাজ শেষ করেছেন। কোন কাজটি বেশি চ্যালেঞ্জিং ছিল?

অবশ্যই মায়া। মায়া শেক্সপিয়ারের ম্যাকবেথ থেকে অনুপ্রাণিত। সিনেমাটিতে ৩টি চরিত্র করেছি। ২০, ৩০ ও ৫০ বছর বয়সী নারী। গেটআপ ও মেকআপে অনেক পরিবর্তন করতে হয়েছে। এটা চ্যালেঞ্জিং যেমন ছিল, তেমনি কাজটা করে তৃপ্তিও পেয়েছি। মায়া আমার জন্য বড় পাওয়া।
– দ্য ডেইলি স্টার