পাকিস্তানের জয় উদযাপন করায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মামলা

অবশেষে প্রথমবারের মতো যেকোন ফরম্যাটের বিশ্বকাপে ভারতকে হারায় পাকিস্তান। ১৩ বারের প্রচেষ্টায় পাওয়া এই জয়ে উদযাপনে মেতে ওঠে সব পাকিস্তানিরা। কেবল পাকিস্তানিরাই নন, ভারতের নিয়ন্ত্রণে থাকা জম্মু-কাশ্মীরের দুটি মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শির্ক্ষার্থীদের বিরুদ্ধেও অভিযোগ উঠেছে বাবর আজমদের জয় উদযাপন করার। আর এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুটি মামলা দায়ের করেছে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ।

এদিকে বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইন বা ইউএপিএ ধারায় এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। যদিও মামলাতে কারো নাম উল্লেখ করা হয়নি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, অভিযুক্ত ব্যক্তিদের এখনও শনাক্ত করা যায়নি। পুলিশের তদন্ত চলছে এবং তদন্ত শেষেই শনাক্তদের বিচারের আওতায় আনা হবে।

এদিকে অভিযোগ রয়েছে, ওইদিন পাকিস্তানের জয়ের পর উদযাপনের পাশপাশি ভারত বিরোধী বিভিন্ন স্লোগানও তোলেন সেই শির্ক্ষার্থীরা। তদন্ত শেষে যারা চিহ্নিত হবেন, ভবিষ্যতে তারা ভারত বা জম্মু-কাশ্মীর সরকারের কোনও পদে চাকরির জন্য আবেদন জানাতে পারবেন না। এর আগে ভারতের হারের পর পঞ্জাবের

সাংরুরে ভাই গুরু দাস ইনস্টিটিউট অফ ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজিতে কাশ্মীরের শির্ক্ষার্থীদের উপর আক্রমণের অভিযোগ উঠেছিল। আক্রান্ত এক ছাত্র হামলার লাইভ স্ট্রিমও করেন ফেসবুকে। তাতে দেখা যায় শিক্ষার্থীদের উপর রড ও লাঠি দিয়ে হামলা করা হয়। এতে ছয় জন কাশ্মীরি শির্ক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

তথ্যসূত্র: বিডি ২৪ রিপোর্ট