ভুল বোঝাবুঝিতে রানআউট আফিফ

অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে রানআউট হয়ে ফিরলেন তরুন ব্যাটার আফিফ হোসেন। সিঙ্গেল রান নেওয়ার পর ডাবল রান নিতে গিয়ে ফেরেন এ তরুণ। তার বিদায়ে ১২.৪ ওভারে মাত্র ৭৩ রানে ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

এর আগে একে একে সাজঘরে ফেরেন লিটন দাস, মোহাম্মদ নাঈম, সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসরের ২০তম ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং নেয় বাংলাদেশ।

ইনিংসের প্রথম ওভারে ইংলিশ অফ স্পিনার মঈন আলীকে পরপর দুই বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ওভারে ১০ রান আদায় করে নেন লিটন দাস ও মোহাম্মদ নাঈম শেখ।

দ্বিতীয় ওভারে পেস বোলার ক্রিস ওকস খরচ করেন মাত্র ৩ রান। তৃতীয় ওভারে বোলিংয়ে এসে পরপর দুই বলে বাংলাদেশ দলের দুই ওপেনার লিটন-নাঈমকে ক্যাচ তুলতে বাধ্য করেন মঈন আলী।

ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে ক্রিস ওকসের করা দ্বিতীয় বলে আদিল রশিদের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিনত হন সাকিব আল হাসান। তার বিদায়ে ৫.২.ওভারে মাত্র ২৬ রানে প্রথম সারির ৩ উইকেট হারায় বাংলাদেশ দল।

এরপর আশা জাগিয়েও দায়িত্বশীল ব্যাটিং করতে পারেননি মুশফিকুর রহিম। দলীয় ৬৩ রানে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন এ তারকা ব্যাটসম্যান। মুশফিক আউট হওয়ার মাত্র ১০ রানের ব্যবধানে রানআউট হয়ে ফেরেন তরুণ ব্যাটার আফিফ হোসেন।

বাংলাদেশ: মোহাম্মদ নাঈম শেখ, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকু রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, মেহেদী হাসান, নাসুম আহমেদ, শরিফুল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমান।

ইংল্যান্ড: জেসন রয়, জস বাটলার, ডেভিড মালান, জনি বেয়ারস্টো, ইয়ন মরগান, লিয়াম লিভিং, মঈন আলী, ক্রিস ওকস, ক্রিস জর্ডান, আদিল রশিদ ও টাইমাল মিলস।