লজ্জার হারের জন্য আইপিএলকে দুষলেন পেসার বুমরা

পর পর দুই ম্যাচে নাস্তানাবুদ ভারত। ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগে চরম ব্যর্থ বিরাট কোহলির দল। প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বোলারদের তোপে ১৫১ রানে থেমে যায় বিশ্বসেরা ব্যাটিং লাইনআপ। পরের ম্যাচে যেন আগের ম্যাচের পুনারবৃত্তি। রোববার ভারত থামল ১১০ রানে।

ফলে যথাক্রমে ১০ ও ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারল বিরাট কোহলির দল।

সমালোচকদের প্রশ্ন— একই ভেন্যুতে এই তো কদিন আগেই মাসব্যাপী আইপিএল খেলেছেন বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া ভারতীয় দলের ক্রিকেটাররা। চার-ছক্কার পসরা মিলিয়ে বসেছিলেন কোহলি-রোহিত ও রাহুলরা। ক্ষুরধার বোলিং করেছিলেন, বরুণ-বুমরা-শামিরা।

এখন সেসব তারকা বিশ্বকাপ মঞ্চে নেমেই অচেনা হয়ে গেলেন কেন?

সমালোচকদের সেই প্রশ্নের জেরেই নিজেদের ব্যর্থতার দায় আইপিএলের কাঁধেই চাপাতে চাইলেন ভারতীয় পেসার জাসপ্রিত বুমরা।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শোচনীয় পরাজয়ের পর সংবাদ সম্মেলনে কোহলির বদলে বুমরা হাজির হন।

টানা দুই লজ্জার হারের কারণ জানাতে গিয়ে বুমরা জানালেন আইপিএল খেলতে খেলতে দলের সবাই ক্লান্ত। দীর্ঘসময় পরিবারের পাশে না থাকতে পেরে মানসিক অবসাদেও ভুগছেন তারা। যার প্রভাব খেলায় পড়েছে।

ভারতীয় পেস আক্রমণের মূল বোলার বলেন, ‘খেলোয়াড়দের বিশ্রামের দরকার হয়। (আইপিএল ও অন্যান্য সূচির কারণে) টানা ছয় মাস খেলতে থাকা সহজ কথা নয়। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর প্রয়োজন হয়। সেটি মনের মধ্যে চলতে থাকে। যদিও মাঠে নামলে সেটি ভাবা উচিত নয়, চলেও না। বিসিসিআই চেষ্টা করেছে আমাদের সাহায্য করতে। কিন্তু সূচি কী হবে সেটি আমাদের হাতে থাকে না। জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থাকলে মানসিক ক্লান্তি আসবেই। কিছু করার নেই আমাদের।

সেই অজুহাতের পর উইকেট ও টসভাগ্যকেও দায়ী করলেন বুমরা।

বললেন, ‘আগের ম্যাচে আমরা দেখেছিলাম যে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করা সহজ হয়ে গিয়েছিল। আজ বল করার সময় আমাদের লেংথ বলগুলো সেভাবে কাজে লাগেনি। কিন্তু ওরা বল করার সময় সেই বল ঠিকমতো ব্যাটে আসছিল না। সে কারণেই আমরা আগে ব্যাট করতে নেমে বেশি রান করার চেষ্টায় আক্রমণাত্মক ব্যাট করছিলাম। আর একের পর এক উইকেট দিয়ে এসেছি। টস খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়ে নিল।

তথ্যসূত্র: যুগান্তর