নখ প’রিষ্কার রাখার ৩টি ঘরোয়া উপায় অব’শ্য’ই ট্রা’ই করুন!

কি? নখের কোণে নোংরার ঠেলায় অস্থির তো? ভাবুন তো, কোথায় নখের কোণে একটু ময়লা জমল, তার জন্য পার্লারে ছুটতে ভালো লাগে, আপনিই বলুন? অথচ নখে ময়লা জমে থাকলে সেটা দে’খতে এমনিতেই খুব খা’রাপ লাগে।

আর ভাবুন তো, আপনি অমন শখ করে বড় নখ রাখলেন, তারপর তাতে ময়লা জমল আর আপনি লজ্জায় কাউকে হাতই দেখাতে পারলেন না! সেটা তো মোটেই ভালো ব্যাপার নয়। তার চেয়ে এবার বাড়িতেই বসে নখ প’রিষ্কার করুন, আর দেখে নিন স্পেশাল ‘দাশবাস’ টিপস।

১. টুথপেস্ট: অ’বাক হচ্ছেন তো? ভাবছেন দাঁত সাদা ক’রতে টুথপেস্ট তো জানতেনই। কিন্তু নখ প’রিষ্কার ক’রতেও টুথপেস্ট? আজ্ঞে হ্যাঁ। শুধু দাঁতে নয়। টুথপেস্ট কিন্তু আপনার নখেও কামাল দেখাতে পারে। কীভাবে?

পদ্ধতিঃ নরম একটা ব্রাশে টুথপেস্ট লা’গান। তারপর ঘষে ঘষে নখ আর নখের চারপাশ প’রিষ্কার করে ফেলুন। জল দিয়ে ধোবার পর দেখবেন আপনার নখ কেমন ঝকঝক করছে! সপ্তাহে বার দুয়েক এটা ক’রতেই পারেন।

২. পাতিলেবুর রস: পাতিলেবুর রস কিন্তু আপনার নখকে দারুণ প’রিষ্কার ক’রতে পারে। আর তাছাড়া আপনার নখ যদি হলুদ হয়ে থাকে, তাহলে নখকে সাদা ক’রতেও কিন্তু পাতিলেবু কাজে লাগে।

উপকরণঃ ৩-৪ চামচ পাতিলেবুর রস

পদ্ধতিঃ পাতিলেবুর রস একটা ছোট বাটিতে নিয়ে আপনার নখ ডুবিয়ে জাস্ট মিনিট দশেক বসে থাকুন। তারপরে হালকা গরম জলে হাত ধুয়ে নিন। নিজেই দে’খতে পাবেন আপনার নখ কি দারুণ প’রিষ্কারই না হয়ে গেছে। সপ্তাহে ৩ দিন করুন। উপকার পাবেনই।

৩. বেকিং সোডা: ওপরের দু’টো জিনিস ব্যবহার করেও কি আপনার নখ প’রিষ্কার হচ্ছে না? উফ! এর জন্যে চিন্তা করার কি আছে? আপনার তাহলে চাই নখের ময়লার মোক্ষম যম বেকিং সোডা।

উপকরণঃ ২ চামচ বেকিং সোডা, ৫ চামচ হালকা গরম জল

পদ্ধতিঃ হালকা গরম জলে বেকিং সোডা মিশিয়ে একটা পেস্ট মতো বানান। এবার ভালো করে পেস্টটাকে আপনার নখে আর নখের কোণে লা’গিয়ে নিন। ৫ মিনিট মতো রেখে ধুয়ে ফেলুন। তবে এটা আবার রোজ ক’রতে যাবেন না যেন! ওতে দেখবেন নখেরই বারোটা বেজে গেছে। সপ্তাহে একদিন করুন। তারপর দেখবেন!

তাহলে জে’নে নিলেন ঘরে বসে আপনার নখকে প’রিষ্কার রাখার উপায়। এবার আর দেরী কীসের? এবার বাড়িতে বসেই নখ প’রিষ্কার করুন। আর চকচকে নখে সব্বাইকে চ’মকে দিন।