হুবাহু অবিকল নেহা কাক্কার এর কন্ঠে গান গেয়ে সকলকে তাক লাগালো যুবক, ভাইরাল(ভিডিও সহ)

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে দেশের যেকোনো জায়গায় যেকোন কারোর প্রতিভা দুনিয়াজুড়ে ছড়িয়ে যেতে পারে। ইন্টারনেটের এই গতিমান দুনিয়াতে সবার মুঠোফোনেই আছে সোশ্যাল মিডিয়া যেমন ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ইত্যাদি।

ইন্টারনেটের মাধ্যমে কারোর সুপ্ত প্রতিভা ছড়িয়ে যাচ্ছে দেশ-বিদেশে এবং সে চলে আসছে লাইম লাইটে। লকডাউন চলাকালীন এরকম হাজার হাজার উদাহরণ দেখেছি আমরা।

আর এর জন্য তাদের শুধুমাত্র কিছু এমবি ইন্টারনেটের দরকার হয়। আর যদি আপনার ট্যালেন্ট ভালো থাকে, তাহলে খুব সহজে আপনি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে জনপ্রিয়তা পেয়ে যাবেন।

এই সমস্ত প্লাটফর্মে অনেক ধরনের ভিডিও ভাইরাল হয়ে থাকে। তাদের মধ্যে সবথেকে বেশি ভাইরাল হয়ে থাকে গানের ভিডিও। সকলেই গান শুনতে অত্যন্ত পছন্দ করেন। এই কারণে গানের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে আসার সঙ্গে সঙ্গে হটকেক হয়ে ওঠে।

তবে এবারের ভিডিওতে আমরা এমন একজনের গান শুনতে পাবো যার হয়তো তেমন ভাবে কোন প্রাতিষ্ঠানিক পরিচিতি নেই, কিন্তু তার গলায় মা সরস্বতী বিরাজমান।

এই ভিডিওটি ইন্ডিয়ান আইডলের অডিশন পর্বের এবং এখানে অরুণাচল প্রদেশের একটি ছেলে অবিকল নেহা কাক্কার এর কন্ঠে একটি গান উপহার দিয়েছে সকলকে।

আপনারা হয়তো সকলেই মিউজিক রিয়েলিটি শো ইন্ডিয়ান আইডলের সঙ্গে অত্যন্ত পরিচিত। এই রিয়েলিটি শোতে সকলে নিজের প্রতিভা প্রদর্শন করতে আসেন।

সেরকম ভাবেই অরুণাচল প্রদেশের জেলি তামিনি ও নিজের গানের দক্ষতা প্রদর্শন করতে এসেছিলেন। জেলি তামিনি অরুণাচল প্রদেশের বেশ কিছু সিনেমাতে প্লেব্যাক সিঙ্গার হিসেবে গেয়েছেন ইতিমধ্যেই।

তার গলার মধ্যে কি অদ্ভুত ক্ষমতা রয়েছে। তিনি একইসাথে মহিলা কন্ঠে এবং পুরুষ কন্ঠে গান গাইতে পারেন। দুটি কণ্ঠে তিনি সমানভাবে দক্ষ। ইন্ডিয়ান আইডলের অডিশনে দিতে এসে তিনি প্রদর্শন করলেন নেহা কাক্কার এর গাওয়া ‘ ও হমসফর ‘ গানটি। এই গানে তিনি দুটি আলাদা আলাদা কন্ঠ ব্যবহার করে গেয়েছেন

তার ব্যবহার করা মহিলা কণ্ঠটি একেবারে নেহা কাক্কার এর মত শোনাচ্ছিল। বিচারকমণ্ডলীর আসনে বসেছিলেন বিশাল দাদলানি, নেহা কাক্কার নিজে এবং হিমেশ রেশমিয়া। তিনজনেই ওই ছেলেটির গান শুনে অত্যন্ত মুগ্ধ হয়েছেন। এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে আসার সঙ্গে সঙ্গেই হয়ে গিয়েছে বেশ ভাইরাল। নেটিজেনরা ছেলেটিকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন।