সব ছবিতেই ছে’লেকে দিয়ে নায়িকাদের চুমু খাওয়ান; অ’ভিযোগে মুখ খুললেন ডেভিড ধাওয়ান!

তা, বলতে নেই, হালফিলে অ’ভিযোগ কিছু কম উঠছে না বলিউডের বিখ্যাত পরিচালক তথা প্রযোজক ডেভিড ধাওয়ানের (David Dhawan) বি’রুদ্ধে! একটা করে ছবিতে তিনি হাত দিচ্ছেন আর চার দিক থেকে দেখ না দেখ ঝাঁকে ঝাঁকে উড়ে আসছে অ’ভিযোগ আর বিতর্কের তির!

নেপোটিজম বা স্বজনপোষণ, টুকলি, অশালীনতা, কোনও কিছুই প্রায় বাদ যাচ্ছে না তাঁর ছবিগুলোর সমালোচনার তালিকা থেকে! হালে যেমন সব সমালোচনা ঘুরে-ফিরে এসে ঠেকেছে কুলি নম্বর ১ (Coolie No 1) ছবিটা নিয়ে।

অনেকেই বলছেন, ডেভিডের আজকাল আর মা’থা কাজ করে না, তাই পুরনো ম’দকেই নতুন বোতলে ঢেলে বলিউডের ভক্তদের মন মজানোর চেষ্টা করে চলেন তিনি। না হলে তিনি খামোখা ২০২০ সালে নিজের ওই এক নামের ১৯৯৫ সালের ছবির রিমেক কেন হাজির করতে যাবেন? বা ১৯৯৭ সালের জুড়ওয়াকে (Judwaa) ২০১৭ সালের পর্দায় ফিরিয়ে আনবেন?

ডেভিড অবশ্য তাঁর সাম্প্রতিক সাক্ষাৎকারে এ নিয়ে কথা বলার কোনও প্রয়োজনই বোধ করেননি। তাঁর ছবি, তিনি যা ইচ্ছা করবেন, অন্যের কী’ বলার আছে! তাঁরা ইচ্ছা হলে দেখবেন, না হলে দেখবেন না- এমন একটা মনোভাব নিয়ে তিনি মুখ বুজে ছিলেন।

কিন্তু ছে’লে বরুণ ধাওয়ানকে (Varun Dhawan) তিনি সব ছবিতে নায়িকাদের চুমু খাওয়ার সুযোগ করে দেন- এ কথাটা শোনার পরেই আর স্থির থাকতে পারলেন না!

আসলে ডেভিড ছে’লেকে নিয়ে ছবি করলেই তাতে ঠোঁটঠাসা চুমুর একাধিক দৃশ্য থাকেই! ম্যায় তেরা হিরো-তে (Main Tera Hero) ইলিয়ানা ডিক্রুজ (Ileana D’Cruz) আর নার্গিস ফকরিকে (Nargis Fakhri) চুমু, জুড়ওয়া ২-তে (Judwaa 2) তাপসী পান্নু (Taapsee Pannu) আর জ্যাকেলিন ফার্নান্ডেজকে (Jacqueline Fernandez) চুমু আর এ বার কুলি নম্বর ১-এ সারা আলি খানকে (Sara Ali Khan) চুমু- চলছে তো চলছেই!

কিন্তু ডেভিডের বক্তব্য- চিত্রনাট্যের প্রয়োজনেই না কি এ সব রাখতে হয়! তিনি ছে’লেকে কোনও সুযোগ করে দেন না! তাঁর আরও দাবি- হালফিলের বলিউডের ছবিতে চুমুটাই সব চেয়ে হালকা অন্তরঙ্গ দৃশ্য, অন্য অনেক ছবিতে এর চেয়েও ঢের বেশি কিছু থাকে!

সে না হয় হল! কিন্তু বাবা হয়ে চোখের সামনে ছে’লেকে চুমু খেতে দেখতে বাধো বাধো ঠেকে না? এই অ’ভিযোগের উত্তরও ডেভিড দিয়েছেন নির্বিকার ভাবেই! সাফ কথা তাঁর- যখন শ্যুটিং চলছে, তখন সেটা পেশাদার জায়গা!

আর পেশাদারিত্বের ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত অনুভূতিকে পাত্তা দিলে চলে না! তিনি শুধু বলে দেন বরুণকে যে কেমন ভাবে চুমু খেতে হবে! ছে’লে সেটুকু উতরে দিলে আর ও নিয়ে মা’থা তিনি ঘামান না!