যদি ম’রে যাই, হাশরের ময়দানে দেখা হবে: কাদের মির্জা

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা ‘যেকোনও সময় জীবন বিপন্ন’ হওয়ার শ’ঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত এই মেয়র প্রার্থী বলেছেন, ‘কোম্পানীগঞ্জে অ’স্ত্রের ঝনঝনানি চলছে। যেকোনও সময় আমা’র জীবন বিপন্ন হতে পারে। আমি আপনাদের কবর দেখিয়ে দিয়েছি, আমাকে সেখানে কবর দেবেন। যদি মা’রা যাই হাশরের ময়দানে দেখা হবে।

‘চামচারা শেখ হাসিনার সব অর্জন ধ্বংস করে দিচ্ছে’ বলেও এসময় মন্তব্য করেন তিনি।
সোমবার (১১ জানুয়ারি) বসুরহাট পৌর নির্বাচন সামনে রেখে রুপালি চত্বরে ব্যবসায়ীদের আয়োজনে এক নির্বাচনী সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

আবদুল কাদের মির্জা বলেন, ‘ফেনীতে একজন উপজে’লা চেয়ারম্যানকে প্রকাশ্যে গু’লি করে পেট্রোল ঢেলে নি’র্ম’মভাবে গাড়িসহ পুড়িয়ে হ’ত্যা করা হয়েছে। দুঃখজনক হলেও সত্যি, সে হ’ত্যাকা’ণ্ডের আজও বিচার হয়নি।’
এসময় নোয়াখালীর জে’লা প্রশাসকের উদ্দেশ্যে নৌকার এই মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘একজন এমপির নামযু’ক্ত মাস্ক কীভাবে পড়েন আপনি? আপনি তো নিরপেক্ষ লোক নন।’

নির্বাচনী সভায় কোম্পানীগঞ্জ উপজে’লা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্ম’দ শাহাব উদ্দিন, ব্যবসায়ী গো’লাম শরীফ চৌধুরী পিপল ও আওয়ামী লীগ সভাপতি খিজির হায়াত খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সম্প্রতি বসুরহাট পৌর নির্বাচন ঘিরে ‘দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন, প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তা ও আওয়ামী লীগে অ’পশক্তির দাপট’ নিয়ে বক্তব্য দিয়ে সারা দেশে ব্যাপক আলোচনা ও বিতর্কের জন্ম দেন কাদের মির্জা।