ফুটফুটে ২ স;ন্তান ও স্ত্রী’কে বাস;স্ট্যান্ডে রে;খে পা;লা;লেন স্বা;মী!

তীব্র শীতের মধ্যে বাসস্ট্যান্ডে বসে আছেন মধ্যবয়সী এক নারী। তার কোলে ছয় মাসের শি’শু। পাশেই হাত দিয়ে ধরে রেখেছেন চার বছর বয়সী আরেক সন্তানকে। একই সঙ্গে মোবাইলে কা’ন্না করে কাউকে বলেছেন, ‘আমাকে নিয়ে যান, আপনি কোথায় গেলেন, আমি আপনার কাছে কিছুই চাই না, শুধু সংসার করতে চাই।’

জানা গেছে, বিয়ে হওয়ার ১০ বছর পর প্রথমবারের মতো শ্বশুরবাড়ি নিয়ে যাওয়ার কথা বলে বাসস্ট্যান্ডে ওই নারীকে সন্তানসহ রেখে লাপাত্তা হয়েছেন স্বামী। বারবার ফোন দিলেও তার পক্ষে আর সংসার করা সম্ভব নয় বলে ফোন কে’টে দেন।

আজ শুক্রবার সকালে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে ময়মনসিংহ-কি’শোরগঞ্জ মহাসড়কের নান্দাইল উপজে’লা সদরের পুরনো বাসস্ট্যান্ডে।

বাসস্ট্যান্ডে অবস্থান করা যাত্রীবাহী বাসের টিকিট মাস্টার মো. মুন্না মিয়া জানান, খুব ভোরে ওই নারী দুই শি’শুসন্তানকে নিয়ে বাসস্ট্যান্ডে আসেন। পরে দেখা যায়, ওই নারী মোবাইল ফোনে কার সঙ্গে যেন উচ্চৈঃস্বরে কা’ন্না করে তাকে নিয়ে যাওয়ার জন্য আকুতি জানান।

ওই নারী বলেন, তার নাম ঋতু পর্ণা (২২)। তিনি জামালপুর জে’লার সদর উপজে’লার লাহিড়িকান্দা নামক স্থানের সামছুল হকের মে’য়ে। তিনি ঢাকায় গার্মেন্টে কাজ করতেন।

সেখানেই পরিচয়ের সূত্র ধরে ১০ বছর আগে বিয়ে হয় মোশারফ হোসেন (২৫) নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে। কয়েক বছর ঢাকায় থাকার পর বাবার বাড়িতে চলে আসেন। স্বামী মোশারফও মাঝেমধ্যে আসতেন। তাদের সংসারে নিরব ও রূপা নামে দুটি সন্তান রয়েছে।

নিরবের বয়স ছয় মাস এবং রূপার চার মাস। সন্তান জন্ম নেওয়ার পর থেকেই ভরণপোষণ দিতে অনীহা দেখায় স্বামী। একপর্যায়ে শ্বশুরবাড়ি যেতে চাইলে বিভিন্ন টালবাহানায় এড়িয়ে যায়।