তামিমার সঙ্গে সম্পর্ক রাখতে চাইছিলেন না নাসির! বেড়িয়ে আসলো নতুন তথ্য

জাতীয় দলের ক্রিকেটার নাসির টাকার বিনিময় আরেকজনের বউকে বিয়ে করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নাসিরের বন্ধুদের দাবি, তামিমা তাকে বিয়ে করার আগে ১০ লাখ টাকা দিয়েছে নাসিরের এক বন্ধুর মাধ্যমে। সেই টাকা পেয়েই জাতীয় দলের এ ক্রিকেটার তামিমাকে বিয়ে করেন।

সম্প্রতি অন্যের বৌ ভাগিয়ে নিয়ে বিয়ে এবং তামিমার আগের স্বামীর থানায় জিডির ঘটনায় ক্রিকেটার পাড়া এসব নিয়ে

সরগরম। আগে এক মডেল ও নাসিরের প্রেমের পর ফোন কেলেংকারির রেশ এখনো মুছে যায় ভক্তদের হৃদয় থেকে। এরই মাঝে হঠাৎ বিয়ের খবরে তোলপাড় চলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। নানা বিতর্কের জন্ম দেওয়া এই ক্রিকেটার এবার জড়ালেন নয়া বিতর্কে।

নাসিরের এক বন্ধু নাম প্রকাশ না করার শর্তে দাবি করে বলেন, টাকার জন্য নাসির অন্যের বউকে বিয়ে করেন। নাসির ঐ বন্ধু বলেন ২০২০ সালের মে মাসে তামিমা তার মাধ্যমে ১০ লাখ টাকা দেয় নাসিরকে। নাসির ও তামিমার কাছের কয়েকজন বন্ধু বলেন, নাসির কোন ভাবেই তামিমাকে বিয়ে করতে রাজি ছিলো না বিভিন্ন

সময় তামিমার কাছ থেকে টাকা নিতো সে । নাসিরের ভাই অসুস্থ হলে তামিমার টাকায় তার ভাইকে হেলিকাপ্টার দিয়ে ঢাকায় এনে চিকিৎসা করে তামিমা। তামিমার তানাজ নামে এক বন্ধু বলেন, ‘বিভিন্ন সময় নাসির তামিমার কাছ থেকে টাকা নিতো। আমি তামিমাকে অনেক

বার মানা করছিলাম কিন্তু আমার কথা শুনতো না। ’তিনি আরোও বলেন, ‘তামিমার ব্যবসা সব গুটিয়ে নাসিরকে টাকা দেয় সে।’ নাসিরের আলোক নামে এক বন্ধু বলেন, ‘নাসির তামিমার সাথে রিলেশন রাখতে চাইছিলো না, কারণ তামিমা নাসিরকে

টাকা দেয়া বন্ধ করে দিয়ে ছিলো। ২০২১ সালের শুরুতে তাদের রিলেশন ভালো ছিলো না । তামিমা আবার নাসিরকে টাকা দেয় বিয়ে করার জন্য। সেই টাকা নিয়ে বিয়ে করে তামিমাকে ।’

গত রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে তামিমা তাম্মি নামে এক কেবিন ক্রুকে বিয়ে করেন নাসির। তবে তামিমার আরেকবার বিয়ে হয়েছিলো এবং সেই স্বামীকে ডিভোর্স না দিয়েই নাসিরকে বিয়ে করেন। তার ঘরে ৮ বছরের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। যে কারণে তোলপাড় সৃষ্টি হয় নেট দুনিয়ায়।