মাহফিলে বক্তব্য দেওয়ার পর বদলি হলেন ‘মানবিক পুলিশ’ শওকত

বেওয়ারিশ অসুস্থ মানুষকে সেবা করার কাজে নিয়োজিত চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) ‘মানবিক ইউনিট থেকে’ আলোচিত কনস্টেবল শওকতকে বদলি করা হয়েছে।

স্থানীয় একটি ওয়য়াজ মাহফিলে বক্তব্য দেওয়ার পরে তার এই বদলি নিয়ে নানা আলোচনা হলেও, পুলিশের দাবি নিয়মিত বদলি’ হিসেবেই তার কর্মস্থল বদলানো হয়েছে।

এ বিষয়ে সিএমপির উপ-কমিশনার আমির জাফর বলেন, শওকত দীর্ঘদিন এক জায়গায় ছিলেন। তাই নিয়মিত বদলির’ অংশ হিসেবে তাকে এ ইউনিট থেকে বন্দর জোনে বদলি করা হয়েছে।

মাহফিলে বক্তব্য দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, ইউনিফর্ম সার্ভিসের লোক হয়ে এ ধরণের বক্তব্য দেওয়া তার ঠিক হয়নি। তবে মাহফিলের পর বদলির আদেশ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি পুলিশ সদস্য শওকত।

এর আগে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম নগরীর দেওয়ান হাটে একটি ধর্মীয় সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য দেন শওকত। সেখানে তিনি সবাইকে মানবসেবায় এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেন,

সারাদিন ওয়াজ শুনেও কোনো লাভ নেই, সবাইকে মানবিক হতে হবে। সেখানে আরও কিছু বক্তব্য তিনি দেন, যা নিয়ে চট্টগ্রামে বিতর্ক শুরু হয়।

উল্লেখ্য, রাস্তাঘাটে পড়ে থাকা অসংখ্য অজ্ঞাত পরিচয়ের ব্যক্তিকে সেবা করে বেশ আলোচিত হন কনস্টেবল শওকত। এমনকি যেসব রোগীকে হাসপাতালেও সেবা দেওয়া হতো না তাদেরকে নিজে সেবা দিয়েছেন।

দীর্ঘদিন এমন সেবামূলক কাজ করে যাওয়ার প ২০১৯ সালের ২৯ নভেম্বর নগর পুলিশের মাসিক কল্যাণ সভায় কনস্টেবল শওকত সেবার বিষয়টি প্রকাশ্যে আনেন।

তার বক্তব্য শুনে তখনকার সিএমপি কমিশনার মাহবুবর রহমান ‘মানবিক পুলিশ ইউনিট’ চালু করেন।