মা-বাবার কবরে গিয়ে অঝোরে কাঁদলেন শাহরুখ

ভারতের দিল্লিতে সেই ৬৫’ সালে এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম বলিউডের বাদশা শাহরুখ খান। দিল্লির অলিগলিতে সহস্র স্মৃতি জমে আছে কিং খানের। একারণেই সময় পেলেই সেখানে ছুটে যান তিনি।

শত ব্যস্ততাকে পাশ কাটিয়ে বাবা-মায়ের কবরে গিয়ে অশ্রুজলে সিক্ত হলেন শাহরুখ খান। অভিনেতার এই ব্যক্তিগত মুহূর্ত ফটোশিকারি সাংবাদিকদের ক্যামেরায় ধরা পড়তেই তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

এর আগে একাধিক সাক্ষাৎকারে মা-বাবা নিয়ে কথা বলেন শাহরুখ খান। তার বাবার নাম তাজ মহম্মদ খান। তিনি পাকিস্তানের পেশোয়ার থেকে ভারতে এসেছিলেন।

যখন শাহরুখের বয়স ১৫ তখনই ক্যান্সারে তার বাবাকে হারান তিনি। দীর্ঘ অসুস্থতার পর ১৯৯০ সালে অভিনেতার মাও চলে যান।

মা-বাবার চলে যাওয়ায় জীবনে যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছিল, অভিনয়ের মাধ্যমে তা পূরণ করতে চেয়েছিলেন অভিনেতা। তখনই বড় পর্দায় অভিনয়ের সুযোগ আসে তার কাছে।

তাই অভিনয়কে শাহরুখ নিছক অভিনয় হিসেবে দেখেন না। এই পেশা তাঁর অনুভূতি প্রকাশ করার মাধ্যমও বটে।

ডেভিড লেটারম্যানের টক শো-তে শাহরুখ জানান, মা-বাবার সঙ্গে যথেষ্ট সময় না কাটানোর আফসোস রয়ে গেছে তার মনে। সেই ক্ষত কাটাতে নিজের সন্তানদের সঙ্গে তাই যতটা বেশি সম্ভব সময় কাটান এ অভিনেতা। শাহরুখের পুত্র আরিয়ান খান এবং

কন্যা সুহানা খান পড়াশোনার সুবাদে বিদেশে থাকেন। তিনি সুযোগ পেলেই তাদের সঙ্গেও মাঝেমধ্যেই দেখা করেন। এছাড়া ছোট ছেলে আবরামের সঙ্গেও নানা সময় খু`নসুটিতে মেতে উঠতে দেখা যায় এই অভিনেতাকে।সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা