‘থা’প্প’ড় ‘মে’রে’ শতবর্ষী বাবার কান ‘ফা’টি’য়ে দিলো ছেলে

জমি-সংক্রান্ত ‘জে’র ধরে এক শতবর্ষী বাবাকে ‘থা’প্প’ড় ‘মে’রে কান ‘ফা’টি’য়ে দিলো তার ‘ল’ম্প’ট ছেলে। ‘ঘ’ট’না’টি ঘটেছে নীলফামারীর জল ঢাকার গোলনা ইউপির ২ নম্বর ওয়ার্ডের মমতাজ উদ্দিনের ছেলে ইব্রাহীম আলী।

মমতাজ আলীর ৭ ছেলে ও ৪ মেয়ের মধ্যে দ্বিতীয় সন্তান ইব্রাহীম। মমতাজ আলী দীর্ঘদিন যাবত ছলেমানের চৌপথী বাজার জামে মসজিনের মোয়াজ্জিনের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

প্রতিদিনের মতো তিনি সোমবার আসরের নামাজের জন্য মসজিদে আজান দেয়ার জন্য বাসা থেকে বের হলে ছেলে ইব্রাহীম তাকে ‘অ’ক’থ্য’ ভাষায় ‘গা’লি’গা’লা’জ করেন। এ সময় ছেলেকে ‘ধ’ম’ক’ দিয়ে ‘মা’র’তে’ গেলে, ‘উ’ল্টো’ ছেলের হাতে ‘মা’র ‘খে’য়ে ‘আ’হ’ত হন বাবা।

সরেজমিনে গেলে ব্যবসায়ীরা জানান, বাজারের ভেতরে লোক সমাগমের মধ্যে ছেলে ইব্রাহীম তার বাবাকে পরপর চারটি ‘থা’প্প’ড়’ ‘মা’রে’ এবং ‘গা’লি’গা’লা’জ’ করে। এসময় বাবাকে ‘মা’র’তে দেখে বড় ছেলে ইয়াসিন আলী এগিয়ে গেলে ‘ল’ম্প’ট’ ইব্রাহীম ‘পা’লি’য়ে যায়।

তবে ইব্রাহীমের ‘অ’ভি’যো’গ জমি বিক্রি করার কথা বলে টাকা নিয়েছেন বাবা। কিন্তু যে জমি দেয়ার কথা ছিলো তা না দিয়ে ‘কা’ল’ক্ষে’পণ করে আসছেন।

তিনি বলেন, এইসব কথা বলতে গেলে বাবা আমাকে ‘মে’রে’ছে’। আমি বাবার ‘শ’রী’রে ‘হা’ত দেইনি, হাত ‘ঝ’ট’কা দিয়েছি মাত্র।

‘আ’হ’ত বাবার কান দিয়ে ‘র’ক্ত’ ‘ঝ’র’লে স্থায়ীয়রা মমতাজ আলীকে ‘জ’লঢা’কা ‘স্বা’স্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকি’সক উন্নত চিকি’ৎসার জন্য দুপুরে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

‘আ’ই’নি ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে জানতে চাইলে বড় ছেলে ইয়াসিন আলী জানান, বাবাকে আগে সুস্থ করতে হবে, তারপর তার ‘বি’রু’দ্ধে ‘আ’ই’নি ব্যবস্থা নেবো।

স্থানীয় ই’উ’পি সদস্য জিল্লুর রহমান বলেন, তাদের বাড়িতে দীর্ঘদিন যাবত জমি ‘সং’ক্রা’ন্ত ‘বি’রো’ধ চলছে। বৃদ্ধ বাবাকে ‘মে’রে’ ‘চ’র’ম ‘অ’প’রা’ধ করেছে ছেলে।