স্ত্রী’ লুৎফুন নাহারের কথা বলতে গিয়ে কাঁদলেন ডা. এজাজ

চিকিৎসা পেশা ও অ’ভিনয় দুটো একই সঙ্গে সামলে চলছেন ডা. এজাজুল ইস’লাম। হু’মায়ূন আহমেদের ৭১তম জন্ম’দিন উপলক্ষে কথা হয় তার সঙ্গে। হু’মায়ূন আহমেদকে নিয়ে স্মৃ’তিচারণ করেছেন তিনি।

পাশাপাশি নিজের পরিবারের কথাও বলেছেন। অ’ভিনয়ের জন্য অনেক সময় দিনের পর দিন বাড়ির বাইরে কা’টাতে হয়েছে। এসবে কেমন সাপোর্ট পান এজাজ।

জবাব দিতে গিয়ে স্ত্রী’ লুৎফুন নাহারকে নিয়ে এজাজ বলেন, ‘অসাধারণ ভালো মানুষ। তার স’ম্পর্কে একটু বলি। আমি তখন কাকরাইলে ভাড়া থাকি। লম্বা মোবাইল ফোনের সময় তখন। আমি বাজারে যাচ্ছি।

স্যার (হু’মায়ূন আহমেদ) ফোন দিলেন নুহাস পল্লীতে যেতে হবে। আমি চলে গেলাম বাজার না করেই। ৯ দিন পরে বাসায় ফিরলাম। বাসায় ঢোকার পর বৌ বললো, হু’মায়ূন স্যার ডেকেছিল?

এরপর শ্রাবণ মেঘের দিনে সিনেমা’র সময় দেড় মাস শুটিংয়ে ছিলাম। দেড় মাস পরে ঢাকায় এসে মনে হচ্ছে নতুন একটা শহরে এসেছি। দেড় মাস পরে বৌ নুহাস পল্লীতে একটা চিরকুট পাঠালো।

চিরকুটে লেখা ‘টাকা শেষ।’ আমিও লিখলাম, ‘শুটিং শেষ, আসছি। দেড় মাস পর বাসায় আসলাম কোনো অ’ভিযোগ নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘আরও একটা ঘটনা আছে। এটা বলতে গেলে কা’ন্না আসে। তখন আমি মোহাম্ম’দপুরে থাকতাম। আমা’র ছোট ছে’লে খুব অ’সুস্থ হয়ে পড়েছিল এই শুটিংয়ের মাঝখানে।

রাত ২টার সময় হঠাৎ ডায়রিয়া ছে’লের। সেই রাতে ছে’লেকে নিয়ে হাসপাতা’লে ভর্তি করে ও। সে ছে’লেকে নিয়ে হাসপাতা’লে ভর্তি থাকে আমি জানতেও পারিনি। তখন বাসায় কোনো ফোন ছিল না।